আগামী জুলাই মাস থেকে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীরা পেতে চলেছেন ৩ টি করে DA কিস্তি

করোনা মহামারীর জন্য বিশ্বের অন্যান্য দেশের সাথে ভারতেও লকডাউন চালানো হয়েছিল। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে তাদের কর্মীদের প্রাপ্ত ডিএ এবং ডিআর এর উপর স্থগিতাদেশ রাখা হয়েছিল । এবার লকডাউন শিথিল হওয়ার সাথে সাথে গত মঙ্গলবার ৯ মার্চ কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের মূল্যবৃদ্ধি ভাতা (ডিএ) ও মহামারী ত্রাণ (ডিআর) এর তিনটি মুলতুবি কিস্তিগুলি ২০২১ সালের জুলাই মাস থেকে পুনঃস্থাপন করা হবে।

 

ওইদিন রাজ্যসভায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের জন্য দেওয়া তিন ডিএনএ কিস্তি গুলি কর্মীরা ২০২১ সালের জুলাই মাস থেকে পাবেন। অনুরাগ ঠাকুরের কথায়, “১ জুলাই, ২০২১ থেকে কার্যকরভাবে ডিএ’র সংশোধিত হারে গ্রহন করা হবে”। এর পাশাপাশি তিনি আরো জানান, “পেনশনভোগীদরা ও কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মচারীদের মূল্যবৃদ্ধি তিনটি মুলতুবি ভাতা ও মূল্যবৃদ্ধি ত্রাণ সম্ভাব্যভাবে পুনরুদ্ধার করা হবে। ডিএর সংশোধিত হারগুলি জমা দেওয়া হবে।”

কোভিড -১৯ মহামারীর সময়কালে কেন্দ্রীয় সরকার তাঁর কর্মচারীদের ডিএ এবং পেনশনভোগীদের ডিআর-এর স্থগিত করেছিল। ডিএ এবং ডি.আর. না দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের প্রায় ৩৭০০০ কোটি টাকা মত বেঁচে গেছিল। যা করোনা মহামারীর মোকাবিলার কাজে অনেকটাই সহায়তা করেছিল।

২০২১ জুলাই পর্যন্ত সরকার ৪% দিয়ে বন্ধ করায় কর্মীদের বকেয়া ডিএ এর পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৭%। এই ডিএ কার্যকর হলে বেতনের পরিমাণ হবে ২১%। এটি ধার্য হওয়ার কথা ছিল নতুন বছরের জানুয়ারি মাস থেকে। কিন্তু করোনা মহামারীর জন্য এটি স্থগিত করা হয়েছিল।