লকডাউন উঠলেই বিশেষ ট্রেন চালু করতে পারে কেন্দ্র, বিশেষ প্রস্তুতির দিকে ভারতীয় রেল

প্রথম দফার লকডাউন থেকে এখনো পর্যন্ত বন্ধ রয়েছে ভারতীয় রেল পরিষেবা। আর দ্বিতীয় দফার লাকডাউন আগামী মে মাসের 3 তারিখে শেষ হওয়ার কথা। কিন্তু ভারতে করোনা পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক হয়নি। সেই দিক থেকে দেখতে গেলে 3 মে লকডাউন উঠবে কীনা তার কোন ঠিক নেই। গত 27 এপ্রিল সমস্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের নিয়ে এ বিষয়ে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সমস্ত রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয় এই বৈঠকে। এছাড়া আলোচনা হয় দেশের রেল যোগাযোগ ব্যবস্থাকে নিয়েও।

1. প্রথমে খবর পাওয়া গিয়েছিল যে, মন্ত্রিগোষ্ঠীর এই বৈঠকে ঠিক হয়েছিল 15 মে পর্যন্ত দেশে বিমান ও ট্রেন চলাচল করবে না। এরপর কয়েকদিন আগে ভারতীয় রেল এই সম্পর্কে একটি বৈঠকে বসে। আর এই বৈঠকের ঠিক হয়, লকডাউন ওঠার পর কোন কোন রুপরেখাতে দেশে ট্রেন চলবে।

2. খবর সূত্রে জানা গিয়েছে যে, ধাপে ধাপে ট্রেন চালানোর বন্দোবস্ত করছে ভারতীয় রেল। ভারতীয় রেলের তরফ থেকে 400 টি বিশেষ ট্রেন চালানোর চেষ্টা করা হবে লকডাউন উঠে গেলে। এমনই এক পরিকল্পনা করা হয়েছে রেল মন্ত্রকের তরফ থেকে।

3. ধাপে ধাপে 400 টি বিশেষ ট্রেন চালাবে রেল। বিভিন্ন রাজ্য থেকে এই ধরনের আর্জি এসেছে। খবর পাওয়া গেছে, বিভিন্ন জায়গায় আটকে পড়া মানুষদের ঘরে ফেরানো এই ট্রেন গুলির মুখ্য উদ্দেশ্য।

4. লকডাউন ঘোষণা করার পর থেকেই বিভিন্ন রাজ্যে আটকে পড়েছে পরিযায়ী শ্রমিকেরা। ফলে ইতিমধ্যে একাধিক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের একটা দায়িত্ব হয়ে উঠেছে এই সমস্ত শ্রমিকদের তাদের নিজস্ব বাড়িতে ফিরিয়ে দেওয়ার। তাই বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে বর্তমানে চিন্তিত রয়েছেন। এমন কী রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল কে ফোন করেছেন অনেক মুখ্যমন্ত্রী।

আর মুখ্যমন্ত্রীদের প্রস্তাব শুনে রেলের এমন সিদ্ধান্ত বলে জানা গিয়েছে। যদিও গতকাল থেকে বিভিন্ন রাজ্যে আটকে পড়া পর্যটক, পরিযায়ী শ্রমিক, পড়ুয়াদের জন্য বাসের বন্দোবস্ত করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার, যাতে তারা ঠিকভাবে বাড়ি পৌঁছে যেতে পারে।