পীযূষ চাওলাকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সে শামিল করার সঠিক কারণ জানালেন অধিনায়ক রোহিত শর্মা নিজেই

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের (IPL) ইতিহাস ঘাটলে দেখা যায় পীযূষ চাওলার তৃতীয় দল ছিল চেন্নাই সুপার কিংস। ২০২০-র আইপিএল নিলামে উঠলে পীযূষ চাওলার বেস প্রাইস নির্ধারিত হয় এক কোটি টাকা। চেন্নাই সুপার কিংস তাঁকে কিনেছিল ৬.৭৫ কোটি টাকা মূল্যের বিনিময়ে। আইপিএল ২০২১ এর নিলামে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স কিনেছে পীযূষ চাওলাকে। কেন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স পীযূষ চাওলা কে কিনে নিল সেই বিষয়ে একটু আলোচনা করবো। ২০২০ আইপিএলে চেন্নাই সুপার কিংস পীযূষ চাওলা কে কিনলেও সেই সময় পীযূষ চেন্নাইয়ের হয়ে বিশেষ কিছু প্রদর্শন করতে সক্ষম হননি। আইপিএল ২০২০ এর ৭টি ম্যাচে পীযূষ ৯.০৯ ইকোনমি রেটে রান দিয়েছিল এবং ৬টি উইকেট নিয়েছিলেন।

আইপিএলের ইতিহাস বলে তৃতীয় সফল বোলার হলেন এই চাওলা। এখনও পর্যন্ত ১৬৪টি ম্যাচে ১৫৬টি উইকেট রয়েছে এই লেগ স্পিনারের খাতায়। ২০০৮ সাল থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত আইপিএলে তিনি পাঞ্জাব কিংসের হয়ে খেলেছিলেন। ২০১৪ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত কলকাতা নাইট রাইডার্স দলে খেলেছিলেন পীযূষ। ২০১১ আরসিবির বিরুদ্ধে পাঞ্জাবের হয়ে পীযূষ প্রদর্শন করেছিলেন ১৭ রানে ৪ উইকেট।

২০২১ এর আইপিএল এর জন্য পীযূষ চাওয়াল খেলবেন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের জন্য। ২.৪ কোটি টাকা দামে পীযূষকে কিনেছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। এই খেলোয়াড়ের আইপিএল খেলার ১৩ বছরের দীর্ঘ অভিজ্ঞতা রয়েছে। এই অভিজ্ঞতার ওপর নির্ভর করেই তিনি আইপিএল ২০২১ এ মুম্বাইয়ের হয়ে খেলবেন।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়ক রোহিত শর্মা পীযূষ সম্পর্কে জানিয়েছেন, “আমি অনুর্ধ্ব ১৯ এর দিনগুলি থেকে চাওলার সঙ্গে খেলেছি আর আমি জানি যে ও একজন ভীষণই আক্রামণাত্মক বোলার, যাকে আমরা নিজেদের স্পিন বিভাগে চেয়েছিলাম। ও আইপিএল ২০২১ এর নিলামে আমাদের সবচেয়ে ভালো ক্রয় ছিল। ও আইপিএলে সবচেয়ে বেশি উইকেট নেওয়া বোলারদের মধ্যে একজন। ও এই ফর্ম্যাটকে বোঝে আর সমস্ত বিপক্ষ দলের দুর্বলতাকেও জানে”।