দেশনতুন খবরবিশেষলাইফ স্টাইল

সোনা-রূপো নয় বরং এই জিনিসটি কিনলেই মা লক্ষ্মী ধনতেরাসে হবেন তুষ্ট…

যেমন কি এবার আমরা জানি এবার 25 শে অক্টোবর শুক্রবার দিন এ বছর হতে চলেছে ধনতেরাস। আর তারই সঙ্গে শুরু হয়ে যাবে দেশজুড়ে দীপাবলী উৎসব। ধনতেরাস দিনে আরাধনা করা হয় ধণের দেবী লক্ষ্মীর, আবার কোথাও কোথাও একই সঙ্গে লক্ষ্মী-গণেশের আরাধনাও করা হয়। আর অনেকেই এই দিনটি মান্যতা বজায় রাখার জন্যই সোনা বা রূপো কিনে থাকেন। তবে যারা একটু আর্থিক দিক থেকে দুর্বল তারা সোনা- রুপার পরিবর্তে অনেক সময় বাসন ও কিনে থাকেন।

তবে একটা জিনিস এই ধনতেরাসের দিনে কিনলে লক্ষী অচলা হয়ে থাকেন। আপনাদের বলে রাখি মৎস্য পুরাণ অনুযায়ী ঝাড়ু কে মা লক্ষ্মী এরূপ মানা হয়। তাই এটা মনে করা হয় যে ঝাড়ু কিনলে পরিবারের দারিদ্রতা দূর করা যায়, সাথে সাথে মিলে ঋণগ্রস্ত অবস্থা থেকে মুক্তি। এই মৎস পুরানের যে ব্যাখ্যা দেওয়া আছে সেখানে বলা আছে যে ঘরের খারাপ শক্তিকে দূর করে পজিটিভ এনার্জি ছড়ায় ঝাড়ু এমনটাই মনে করা হয়। এবারে খারাপ শক্তির পরিবর্তে ঘরের দেবী লক্ষীর বসবাস স্থায়ী হয়।

সাথে-সাথে ঝাড়ু কিনলে দরিদ্রতা থেকে মিলে সুফল সাথে ঋণগ্ৰস্ত অবস্থা থেকেও পাওয়া যায় মুক্তি।আর হিন্দু শাস্ত্র অনুযায়ী ধনতেরাসের দিনে ঝাড়ু কিনলে ঘরের জন্য মঙ্গল হয় তবে এই ঝাড়ু কেনার ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম মানতে হয় তবেই মিলে এই সুফল। এই ধনতেরাসের দিন যদি কিনবেন সবসময় ঝাড়ুর শেষের দিকে লক্ষ্য রাখবেন তার তলায় যেনো সাদা সুতো বাঁধা থাকে।তবে একথা সব সময় মাথায় রাখবেন যে ঝড়ুটি কিনছেনে তাতে কোন প্রকার যাতে পা না লেগে যায় কারণ মা লক্ষ্মী ঝাড়ুতে পা লাগা অন্তত অপছন্দ করেন। সাথে সাথে এই কথা মাথায় রাখবেন যেদিন আপনি ঝাড়ুটি কিনে বাড়িতে আনছেন সেদিন যাতে বাড়িতে কোন প্রকার ঝগড়াঝাটি না হয়।এর সাথে সাথেও এ কথাও মাথায় রাখবেন যেটা জরুরী যখন ঝাড়ু কিনবেন চার জোড়া না হলে অন্তত দুজোড়া যেন কেনেন। আর দিওয়ালি দিনে সূর্যোদয়ের আগে মন্দিরে তা দান করলে ধনবৃদ্ধি নিশ্চিত হয়।

Related Articles

Back to top button