তবে কী আবার কলকাতা নাইট রাইডার্সের দলে ফিরছেন গৌতম গাম্ভীর?

কলকাতা নাইট রাইডার্স এর অন্যতম সফল অধিনায়ক হলেন গৌতম গম্ভীর এ নিয়ে কোন সন্দেহ নেই। টানা 2011 থেকে 2017 সাল পর্যন্ত কলকাতা নাইট রাইডার্স কে নেতৃত্ব দেওয়ার পর,2018 সালে তিনি নতুন চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করার জন্য দল বদল করে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস দলের দায়িত্ব নেন। কিন্তু তিনি এই দলের হয়ে সফল হতে পারেননি। এ বছর আইপিএল-এ দিল্লি ডেয়ারডেভিলস 4 এর মধ্যেও ছিল না। দিল্লি ডেয়ারডেভিলস লাগাতার খারাপ খেলার ফলে মাঝরাস্তায় তিনি নেতৃত্ব ছেড়ে দেন। ব্যাট হাতেও তিনি সেই রকম রান পাননি এ বছর আইপিএলে। তবুও এরকম একটা খবর শোনা যাচ্ছে যে গৌতম গম্ভীর কে আবার দলে টানতে পারে কেকেআর। তবে এখনো পর্যন্ত সঠিকভাবে বলা সম্ভব নয় যে তিনি কেকেআর এ আদৌ ফিরবেন কিনা?

তবুও আমরা পাঁচটি কারণ নিয়ে আলোচনা করছি,যাতে কেকেআর গৌতম গম্ভীরকে দলে টানার সম্ভাবনা আছে।
1. সাম্প্রতিক ফর্ম -2019 এর আইপিএল এটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো যে গৌতম গম্ভীর কেকেআরে ফিরবে কিনা। ঘরোয়া ক্রিকেট ম্যাচ গুলিতে গৌতম গম্ভীর এখন ভালো খেলছেন। তাই কেকেআর গৌতম গম্ভীর কে দলে নিতেও পারে। গৌতম গম্ভীর বিজয় হাজারে ট্রফি তে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান করেন। একটি ম্যাচে তিনি 151 রানের দারুণ ইনিংস খেলেছেন। এখন তিনি ক্যাপ্টেন হিসেবে অনেকটাই সফল। তার নেতৃত্বে দিল্লি ওয়ানডে ক্রিকেটে রানার্সআপ হয়েছেন।


2. কলকাতা জার্সির নস্টালজিয়া – 2011 সালে কেকেআরে হয়ে প্রথম খেলেন। এরপর থেকেই তিনি আইপিএল ক্রিকেটে অন্যতম সফল ব্যাটসম্যান হয়েছেন।
3. মালিকপক্ষের সঙ্গে সম্পর্ক – গম্ভীরের ইচ্ছাতে তাকে ছেড়ে দেওয়ার পর নাইট রাইডার্স এর সিও ভেঙ্কি মাইসোর বলেছেন,গৌতম গম্ভীর আমাদের এই বছরের প্লানে ছিলেন। কিন্তু চাইনি যে তার নিজের ইচ্ছায় দল ছাড়ার সিদ্ধান্ত কে অসম্মান করতে। এবং কেকেআরের আরেক মালিক শাহরুখ খান ও শ্রদ্ধার চোখে দেখেন গম্ভীরকে। এরকম শ্রদ্ধার জোরে কেকেআর আবার গম্ভীরকে দলে নিতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।


4. ইডেন গার্ডেন্স এর পরিচিত -ইডেনের মাঠের প্রতিটি কোন চেনেন নাইট রাইডার্স এর প্রাক্তন অধিনায়ক। এমনকি নাইটের সমর্থকরা গৌতম গম্ভীর কে খুব ভালোবাসে। তিনি জানতেন ইডেনের মাঠে স্পিনারদের সাহায্য হবে তাই তিনি সুনীল নারিনকে তুলে আনেন। তারপরেই নাইটের ব্রহ্মাস্ত্র হয়ে উঠে সুনীল নারিন।
5. ভবিষ্যতের মেন্টর –
আমরা হয়তো সবাই ভালো করেই জানি যে গম্ভীর হয়তো আর মাঠে নেমে বেশিদিন নেতৃত্ব করতে পারবে না। তাই তিনি মাঠের ভিতরে না হলেও মাঠের বাইরে মেন্টর হিসেবে থেকেও নাইটের সাহায্য করতে পারবেন বলে মনে করা হচ্ছে। নাইটে শুভমান গিল এর মত তরুণ ক্রিকেটাররা তাঁর কাছ থেকে অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারবেন।

Related Articles

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Close