মাত্র ৪৫ টাকা কেজি দরে বাস বিক্রি করছেন মালিক, কারণ জেনে আপনিও ফেলবেন কেঁদে

করোনা মহামারীর ফলে আপনার এবং আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা আর্থিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়েছেন। এমন অনেক বড় বড় শিল্প রয়েছে যা অচিরেই ধ্বংস হয়ে গেছে। বহু মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছেন এই মহামারীর জেরে। অন্যান্য শিল্পের মতো বাস শিল্পের বড় ক্ষতি হয়েছে এই করোনার সময়। মহামারীতে অনেকেই বাড়ি থেকে বের হতে চান না। আবার অনেকেই পর্যটন কেন্দ্রে বেড়াতে গেলে নিজের গাড়ি ব্যবহার করা বেশি পছন্দ করেন, বিশেষত এই পরিস্থিতিতে। এমন পরিস্থিতিতে স্বাভাবিকভাবেই বাস অপারেটরদের অর্থনৈতিক অবস্থা ভীষণভাবে খারাপ হয়ে গেছে।

এই বাস অপারেটরদের মধ্যে অন্যতম বাস অপারেটর হল কেরালার বাস অপারেটর। অবস্থা এমন শোচনীয় হয়ে গেছে যে একজন বাস অপারেটর তাঁর বাস প্রতি কেজি ৪৫ টাকায় বিক্রি করতে আগ্রহী হন। কেরালার কোচি জেলার একটি বাস অপারেটর তার বাস গুলি প্রতি কেজি মাত্র ৪৫ টাকায় বিক্রি করে দিয়েছেন। ঋণের দায় বদ্ধতা থেকে নিজেকে বের করে আনার জন্য এমন কাজ করেছেন তিনি।

সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে এই কথা তিনি নিজের মুখে সকলের কাছে স্বীকার করেছেন। একটি ফেসবুক পোস্টে কেরালার অ্যাসোসিয়েশন অফ টুরিস্ট বাস ওনার লিখেছেন, তিনি তাঁর বাস গুলি প্রতি কেজি ৪৫ টাকা করে বিক্রি করে দিতে চান। এই পোস্ট দেখে স্বাভাবিক ভাবেই বোঝা যাচ্ছে যে কেরালার পর্যটন শিল্পের অবস্থা বেশ খারাপ। আর্থিক অবস্থার এমনটাই অবনতি ঘটেছে যে মানুষের সামনে আত্মহত্যা করা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই। ঠিক একই কারণে গত বছর এই বাস মালিক তার ২০টি বাসের মধ্যে ১০ টি বাস বিক্রি করে দিয়েছেন।

গণমাধ্যমের সামনে এই বাস মালিক বলেছেন, জীবনযাত্রা এখন ভীষণ কঠিন হয়ে গেছে। কেউ বেতন পাচ্ছে না। আমার মতই দেশের অন্যান্য মানুষের অবস্থা একইরকম। এই মুহূর্তে বাস বিক্রি করে দেওয়া ছাড়া আর কোন উপায় নেই। বাস বিক্রি করে সময়মতো ঋণ পরিশোধ করতে হবে আমাকে। এছাড়াও কিছু ট্যাক্স এবং বীমা পরিশোধ করার জন্য এই বাস বিক্রি করার সিদ্ধান্ত আমি গ্রহণ করেছি। এছাড়া আর কোন উপায় আমার সামনে নেই।