বাজেট ২০১৯ হাইলাইট: এক নজরে দেখে নিন মোদি সরকারের স্পেশাল বাজেট।

ইতিমধ্যে অন্তবর্তীকালীন অর্থমন্ত্রী অর্থাৎ রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল ভারত গড়ার লক্ষ্যে ডাক দিয়ে অন্তর্বর্তী বাজেট পেশ করলেন। সুতরাং দেখে নেওয়া যাক বর্তমান মেয়াদ শেষ কালীন কি ঘোষণা করল মোদি সরকার ?

(১) পীযূষ গোয়েল আইকর নিয়ে এক বিরাট বড় বাজেট পেশ করলেন যেখানে আয় কর ছাড় অপরিবর্তিত রাখা হল শুধুমাত্র বেতনভোগীদের জন্য। এছাড়াও আয় করের ঊর্ধ্ব সীমাকে বাড়িয়ে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত করা হয়েছে, অর্থাৎ কোন ব্যক্তির বার্ষিক আয় যদি ৫ লক্ষ টাকার কম হয়ে থাকে তাহলে সরকারকে কোনরকম ট্যাক্স দিতে হবে না।  এর আগে এই ছাড়ের উর্ধ্বসীমা ছিল মাত্র ২.৫ লক্ষ টাকা । যদিও ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত এবার ছাড় দেওয়া হবে , কিন্তু পুরো টাকার বিস্তারিত বিবরণ জমা করতে হবে।

(২) যেখানে আগে স্ট্যান্ডার্ড  টেক্স ডিডাকশন ৪০ হাজার টাকা ছিল সেটার উর্ধ্বসীমা কে বাড়িয়ে ৫০ হাজার টাকা করা হয়েছে।

(৩) কেন্দ্রীয় সরকার লোকসভা ভোটের আগে কৃষক জন্য নিয়ে এসেছে ‘কল্পতরু ‘ নামক প্রকল্প। এবার বাজেটে প্রধানমন্ত্রী “কিষান সম্মান নিধি প্যাকেজ” ঘোষণা করেছেন পীযূষ গোয়েল। এই প্রকল্পের জন্য মোট ৭৫ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে, আর এই প্রকল্পের টাকা সরাসরি কৃষকদের ব্যাংক একাউন্টে চলে যাবে । যেখানে বলা হয়েছে কৃষকরা প্রত্যেক বছর ৬ হাজার টাকা পর্যন্ত পাবেন তাদের ব্যাংক একাউন্টে । শুধু তাই নয় , যারা পশু পালন ও মৎস্য চাষের জীবিকার সাথে যুক্ত তাদের জন্য মাত্র ২ শতাংশ সুদে ভর্তুকির কথা ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়াও যারা প্রাকৃতিক দুর্যোগে বিপর্যস্ত তাদেরকে মাত্র ২ শতাংশ সুদ ভর্তুকি  ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার । আবার সরকার কর্তৃপক্ষ থেকে  দেওয়া ঋণ শোধ করলে মিলবে ৩ শতাংশ ভর্তুকি দেওয়ার জন্য কথা জানানো হয়েছে।

(৪) যেসব কর্মীরা অসংগঠিত, তাদের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার ঘোষণা করেছে ” মেগা পেনশন যোজনা” । এই যোজনার আওতায় এলে ৬০  বছরের বেশি বয়সী অসংগঠিত শ্রমিকদের প্রধানমন্ত্রী সংযোগ প্রকল্পে তিন হাজার টাকা করে মাসিক পেনশন এর ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে।

(৫) এছাড়া প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনা আওতায় আগে ৬ কোটি এলপিজি সংযোগ দেওয়া হয়েছে।এবার ঘোষণা অনুযায়ী বিনামূল্যে আট কোটির ও বেশি এলপিজি সংযোগ দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে এই বাজেটে।

(৬) এছাড়াও রেলের জন্য ১.৫৮ লক্ষ্য কোটি টাকা বরাদ্দ করেছেন কেন্দ্রীয় অন্তর্বর্তীকালীন অর্থমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। এছাড়া আধুনিক প্রযুক্তির  ট্রেনের সূচনা করেছে রেল ট্রেন-১৮ এখন “বন্দে ভারত এক্সপ্রেস”।এছাড়া পীযূষ গোয়েল আরও দাবি করেন যে “মেক ইন ইন্ডিয়া” প্রকল্পে তৈরিতে এই ট্রেন ভারতীয় রেলকে নতুন গতি প্রভাবিত করবে।

তিনি আরো ঘোষণা করেন যে গোমাতা সুরক্ষার জন্য কেন্দ্রকে যা যা করার তাই করবে বলেন অস্থায়ী অর্থমন্ত্রী ও মাতার উন্নয়নকল্পে নয়া প্রকল্পের ঘোষণা করেন তিনি। কামধনু আয়োগ প্রকল্প চালু করা কোথাও জানান তিনি। রাষ্ট্রীয় গোকুল মিশনে বরাদ্দ বাড়িয়ে করা হয়েছে ৭৫০ কোটি টাকা। তবে এখানেই শেষ নয় তিনি আরো বলেন বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত গতিতে ছুটছে এখন ভারত, কমেছে ভারতের মূল্য বৃদ্ধি। ভারতের আর্থিক বৃদ্ধির হার বেড়েছে বলেও তিনি জানান। মূল্য বৃদ্ধির হার ৫% নিচে নিয়ে আনা হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন। এটা বলা বাহুল্য যে আজ বাজেটে তিনটি শ্রেণী কে সন্তুষ্ট করতে শেষ চেষ্টা শুরু করলেন রেলমন্ত্রী ও অস্থায়ী অর্থমন্ত্রীর পীযূষ গোয়েল। বিশেষ করে এই ঘোষণা গুলির পর লাভবান হবে কৃষক ও ছোট ব্যবসায়ীরা। আপনাদের জানিয়ে রাখি কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি অসুস্থ তাই আজ বাজেট পেশ করলেন রেলমন্ত্রী ও অস্থায়ী অর্থমন্ত্রীর পীযূষ গোয়েল।