ভুলে যান 5G, 4G টাওয়ারেই ঝড়ের গতিতে 5G স্পিড দেবে BSNL

আস্তে আস্তে এগিয়ে চলেছে ইন্টারনেট পরিষেবা আরো উন্নত পরিষেবার দিকে। এতদিন আমরা ফোরজি নেটওয়ার্ক ব্যবহার করতাম, তবে এবার আস্তে আস্তে ফাইভ-জি এবং সিক্স জি নেটওয়ার্কের দিকে এগিয়ে চলেছে ইন্টারনেট। তবে এ ক্ষেত্রে কিছুটা পিছনে পড়ে রয়েছে ভারত সঞ্চার নিগম লিমিটেড অর্থাৎ বিএসএনএল। এতদিন শুধু মাত্র 3g নেটওয়ার্ক এর উপর ভরসা রাখুন এবার ফোরজি নেটওয়ার্ক শুরু করতে চলেছে এই টেলিকম সংস্থা।

একাধিক রিপোর্টে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের আগস্ট মাস থেকেই নাকি 4g পরিষেবা চালু করতে চলেছে টেলিকম সংস্থাটি। প্রথমে কিছু কিছু এলাকায় এই নেটওয়ার্ক লঞ্চ করা হলেও মোটামুটি চলতি বছরের মধ্যে গোটা দেশজুড়ে এই ফোরজি নেটওয়ার্ক শুরু করে দিতে পারবে বিএসএনএল। ফোরজি নেটওয়ার্ক শুরু করার জন্য যে হার্ডওয়ার ব্যবহার করবে বিএসএনএল, তাতে করে পরবর্তীকালে ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক চালু করতে পারবে এই টেলিকম সংস্থাটি।

একটি বেসরকারি সংবাদমাধ্যমে রিপোর্ট অনুযায়ী, কন্যাকুমারী নাগেরকয়েলের ২৯২ টি মোবাইল টাওয়ারে 4g পরিষেবা চালু করা হবে। এই সমস্ত টাওয়ারে এমন একটি প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে যা ফোরজি নেটওয়ার্ক এর পাশাপাশি ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক সাপোর্ট করবে। রিপোর্টে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, ওই একই এলাকায় এখনই ৩০০ টি পাওয়ার যুক্ত করার পরিকল্পনা নিয়েছে বিএসএনএল। এর ফলে ওই এলাকার বাসিন্দারা যেকোনো জায়গা থেকে বিএসএনএল 4g নেটওয়ার্ক ব্যবহার করতে পারবেন।

আরো ভালো কভারেজের জন্য কিছু দিনের মধ্যেই একশটি মাইক্রো টাওয়ার ব্যবহার করবে বিএসএনএল। যে সমস্ত এলাকায় ঘনবসতি রয়েছে সেই সমস্ত এলাকা ছাড়াও ব্যবসায়ীক এলাকা, হাসপাতাল বাস স্ট্যান্ড এবং অন্যান্য জায়গায় এই মাইক্রো টাওয়ার ব্যবহার করা হবে।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের দ্বিতীয়ার্ধে থেকে দেশের বিভিন্ন বড় বড় শহরে 5g পরিষেবা চালু করে দেবে বেসরকারি সংস্থা গুলি। এবার এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে চলেছে বিএসএনএল। যদি ভারতের সমস্ত বড় বড় এলাকায় বিএসএনএল চলতি বছরের মধ্যে ফোরজি নেটওয়ার্ক শুরু করে দেয় তাহলে বেশ চাপে পড়ে যাবে বেসরকারি সংস্থা গুলি। প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে আর কি কি নতুন পদক্ষেপ নিতে পারে জিও এয়ারটেল এবং ভোডাফোন আইডিয়া, আগামী দিনে বিএসএনএল কতখানি নিজের স্থান ধরে রাখতে পারে তা সময় বলতে পারবে।