দুর্গা পুজোতে বাড়িতে আনুন এই জিনিস গুলি চলে যাবে দুঃখ-কষ্ট ও আর্থিক সমস্যা! জ্যোতিষী টোটকা

মাতৃ রূপের শক্তির আরাধনায় মেতে উঠেছে গোটা দেশ পালন করছে নবরাত্রি এর এখন বাঙালির সব থেকে প্রিয় উৎসব দুর্গাপুজোর চলছে প্রস্তুতি । এই মুহূর্তে গোটা বাংলা তে পঞ্চমী ,ষষ্ঠী, সপ্তমী, অষ্টমীর চলছে কাউন্টডাউন, এসেছে মা তার বাপের বাড়ি। ঠিক সেই সময়েই গুজরাত রাজ্যেও ও চলছে নবরাত্রির গরবা নাচের মাধ্যমে মায়ের আরাধনা। কোথাও হচ্ছে উমার পুজো আবার কোথাও মা চন্দ্রঘণ্টার আরাধনা চলছে। এই পরিস্থিতি এর মধ্যে জ্যোতিষ এরা জানিয়েছেন কিছু ঘরোয়া টোটকা , যেগুলি আর্থিক কষ্ট মুছে দিয়ে ভালো সময় এনে দেয়। একবার দেখে নেওয়া যাক সেই টোটকা গুলোর সম্পর্কে।

ব্যবসায়ে উন্নতি চান?

এই বছর করোনা পরিস্থিত এর মধ্যে ব্যবসায়িক দিক থেকে অনেকবারই অনেক সমস্যা এসেছে। অর্থনৈতিক জড়িত বিভিন্ন ঘটনার জন্য ও করোনা পরিস্থিতির কারণে কার্যত ভাবে অনেক লোকেরই ব্যবসা তে মন্দা দেখা দিয়েছে। এই সময় জ্যোতিষ মহলে বলা হচ্ছে, আপনার ব্যবসায়িক যে অফিস রয়েছে, অথবা দোকান রয়েছে, সেই খানে এই দুর্গাপুজোর চলাকালীন মা লক্ষ্মীর ছবি অথবা মূর্তি নিয়ে এসে, সেটার পুজো করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। এতে পাওয়া যাবে সাফল্য।

অর্থকষ্ট থেকে বাঁচতে কি করবেন?

এই বছর করোনা চলাকালীন অথবা এমনই অন্য কোনো কারণেই হোক , একটি আর্থিক দুর্ভোগ প্রায় লোকেরই জীবনে একটি বাজে প্রভাব ফেলেছে। আর সেই কুপ্রভাব এর হাত থেকে বাঁচার জন্য ঘরে গণেশ ঠাকুর এর রুপোর মূর্তি নিয়ে এসে পুজো করার কথা বলা হচ্ছে। এছাড়া ও, কোনো রুপোর কয়েনে যদি এই গণেশ ঠাকুর এর প্রতিমূর্তি থাকে, তাহলে সেটি ঘরের জন্য শুভ ফল এনে দিতে পারে। আর্থিক সসমস্যা নিয়ে বিভিন্ন সমস্যার জন্য সমাধান স্বরূপ এই পদক্ষেপ নিতে পারলে ঘরে আসে সুখ ও সমৃদ্ধি।

Advertisements

পদ্মফুল দিয়ে কি হবে?

এই বছর দুর্গাপুজো চলাকালীন যদি মা দুর্গা কে পদ্মফুল নিবেদন করা যায়, তাহলে সেটি খুবই ভালো ফল এনে দিতে পারে বলে মত। পদ্মফুল অর্পণ করলে মা তার প্রতি তুষ্ট হন বলে মত প্রকাশ করেছেন বহু জ্যোতিষবিদ।এই কাজ করলে চাকরি প্রার্থীরাও সুফল পান। জলপদ্ম যদি না পাওয়া যায়, তাহলে স্থলপদ্ম দিয়েও এই সময়ে সুফল পাওয়া যেতে পারে বলে মনে করছেন বহু জ্যোতিষবিদ।

Advertisements

সংসারে অশান্তি কাটাবেন কি ভাবে?

একদিক থেকে যেমন বাংলায় এখন চলছে মা দুর্গার আরাধনা, তেমনই গুজরাট এর মতো অন্য উত্তর রাজ্যে চলছে এখন মা অম্বার পুজো। নবরাত্রি এর উপলক্ষ্য কে ঘিরে গোটা উত্তর ভারত সহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় একটি উত্তেজনা রয়েছে। যে কারণে বিশাল ধুমধাম করে চলছে মা দুর্গার পুজো। এই পুজোর সময় মা দুর্গা কে যদি সিঁদুর আলতা দিয়ে পুজো দেওয়া যায় তাহলে তার বিনিময়ে সুফল পাওয়া যাবে বলে ভাবছেন বহু জ্যোতিষবিদ। জ্যোতিষদের মতে এই দুর্গা পুজোর সময় যদি ঘরে ষষ্ঠী পুজোর দিন মা দুর্গার কোনো মূক্তি ঘরে আনা যায় সেটি খুবই সুফলদায়ী। মায়ের মূর্তির সামনে রোজ প্রদীপ জ্বালানো অত্যন্ত প্রয়োজন।