Categories
নতুন খবর বিশেষ রাজ্য

ব্রেকিং খবরঃকলেজ পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষার চূড়ান্ত দিন ঘোষণা রাজ্যের, বাড়িতে বসে দেওয়া যাবে পরীক্ষা

দেশজুড়ে করোনা আবহে রাজ্যের পড়ুয়াদের মধ্যে একটি বিষয় খুব চিন্তার হয়ে দাঁড়িয়েছিল অর্থাৎ এই করোনা পরিস্থিতিতে ছাত্রীদের পরীক্ষা হবে কিনা? তবে এবার সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী পরীক্ষার দিনক্ষণ ঘোষণা করল রাজ্য সরকার। যেখানে জানানো হয়েছে কিভাবে পরীক্ষা নেওয়া হবে তা পুরোপুরি নির্ভর করবে কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সিদ্ধান্তের উপর, তবে এক্ষেত্রে পড়ুয়াদের কলেজে গিয়ে পরীক্ষা দিতে হবে না। অনলাইনে কিংবা অফলাইনে এর মাধ্যমে নেওয়া হবে এই পরীক্ষা প্রয়োজনে বই দেখে লিখতে পারবেন পড়ুয়ারা।

আগামী অক্টোবর মাসে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষার দিনকাল ঘোষণা করা হয়েছে আর আগামী 1 অক্টোবর থেকে 18 অক্টোবরের মধ্যে সমস্ত ফাইনাল ইয়ারের পরীক্ষা গুলি নেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। এর পাশাপাশি আগামী 31 শে অক্টোবর এর মধ্যে সমস্ত ফল প্রকাশ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে আজ শিক্ষামন্ত্রী এবং উপাচার্যদের মধ্যে বৈঠক করা হয়েছিল যেখানে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এর আগে পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা না নেওয়ার যে সিদ্ধান্ত টি ছিল সেটি সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষার্থীদের জন্য বদল করা হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে ইতিমধ্যে তবে যে সমস্ত কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় গুলো ইতিমধ্যে পরীক্ষা নিয়ে ফল প্রকাশ করেছে সেখানে নতুন করে পরীক্ষা নেওয়ার কথা বলা হয়েছে বলে সূত্রের খবর।তবে এবার বাকি কলেজগুলি বা বিশ্ববিদ্যালয়গুলি কীভাবে পরীক্ষা নেবে এক্ষেত্রে সে পুরো বিষয়টি ছাড়া হয়েছে কলেজ এর উপর। এক্ষেত্রে কলেজে এসে কোন পরীক্ষা দেওয়ার পদ্ধতি করা হবে না বরং পরীক্ষা হবে অনলাইনে এবং অফলাইনে বাড়িতে বসেই দেওয়া যাবে এই পরীক্ষা। সুযোগ থাকলে বই দেখে লেখা যাবে তবে এই মুহূর্তে করোনা আবহের জেরে কলেজে গিয়ে এক্ষেত্রে সশরীরে পরীক্ষা দিতে পারবেন না পরীক্ষার্থীরা।

অন্যদিকে ইতিমধ্যে রাজ্যে দুটি বিশ্ববিদ্যালয়, যা প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ও প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় জানিয়ে দিয়েছে তারা যে পদ্ধতিতে পরীক্ষার ফল প্রকাশ করেছে তা সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ এর বিরুদ্ধে নয়। ইউজিসির সার্কুলার এর পরিপন্থী নয় বলেও জানানো হয়েছে,আর পাশাপাশি প্রেসিডেন্সি ও ম্যাকাও বিশ্ববিদ্যালয় জানিয়েছে তারা নতুন করে আর পরীক্ষা নেবেন না এক্ষেত্রে। তারা যে পুরনো ফলাফল দিয়েছে তা বোঝায় থাকবে। অন্যদিকে এমন কিছু বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে যারা পরীক্ষা না নিয়ে ফল প্রকাশ করেছে যেমন রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়, বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয় তারা আবার পড়ুয়াদের স্বার্থের কথা বিবেচনা করে নতুন করে কলেজে পরীক্ষা নেওয়ার জন্য আরো একমাস অতিরিক্ত সময় চেয়ে নিয়েছে এক্ষেত্রে। আর এই একমাস সময়ের পর নতুন করে পরীক্ষা নিয়ে ফল প্রকাশ করা হবে তাদের তরফ থেকে একথা জানানো হয়েছে।