Breaking News: সীমান্তের উত্তপ্ত পরিস্থিতির মধ্যেই লাদাখে পৌঁছালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, মিলছে বড় কিছুর ইঙ্গিত..

দিনদিন চীনের সাথে ভারতের উত্তেজনা ক্রমশ বেড়েই চলেছে গত 15 জুন লেহ লাদাখে ভারত-চীনের সেনারা সংঘর্ষের মুখোমুখি হয় যেখানে এই সংঘর্ষের জেরে শহীদ হয়েছিলেন ভারতের 20 জন জওয়ান। আর এরকম এক পরিস্থিতির জেরে ভারত চীনকে শায়েস্তা করতে সমস্ত রকম পদক্ষেপ গ্রহণ করছে একের পর এক। যেখানে ভারত সরকারের তরফ থেকে চীনের সাথে করা একাধিক প্রজেক্ট বাতিল করে দেওয়া হয়েছে আপাতত। তারই সাথে 59 টি চীনা অ্যাপ্লিকেশন ভারতে ব্যান করে দেওয়া হয়েছে।

চীনকে ডিজিটাল দিক থেকে শায়েস্তা করতেই ভারতের তরফ থেকে এরকম এর পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, ভারতীয় গোয়েন্দা সূত্রের খবর চীন এই অ্যাপগুলির মাধ্যমে ভারতের একাধিক গতিবিধির ওপর নজর রাখছিল যা ভারতের পক্ষে মোটেও সুবিধার নয়। এখন যে খবরটি বেরিয়ে আসছে সেখানে জানতে পারা যাচ্ছে এই লেহ লাদাখে পৌঁছালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সূত্রের খবর সেনাবাহিনীর মনোবল বাড়াতে শুক্রবার দিন সকালে সীমান্তে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী এই মুহূর্তে সীমান্তের পরিস্থিতি কেমন তা নিয়েও সেনাবাহিনীর সাথে কথাও বলবেন তিনি এক্ষেত্রে।

আর পাশাপাশি এই দিন সামরিক হাসপাতালে আহত সৈনিকদের সাথে দেখা করবেন মোদি। এক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রয়েছেন চিফ অফ ডিফেন্স বিপিন রাওয়াত। গত সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে মন কি বাত রেডিও অনুষ্ঠানে বলতে শোনা গিয়েছিল লাদাখের বিষয় নিয়ে ভারত-চীন কে উপযুক্ত জবাব দিয়েছে।এবং চীনের নাম না করে প্রধানমন্ত্রী এই দিন চীনের উদ্দেশ্যে বলেন যদি কোনো দেশ লাদাখের দিকে তাকায় তাহলে তার যোগ্য জবাব দেওয়ার জন্য ভারতও প্রস্তুত থাকবে।

প্রসঙ্গত যেমনটা আমরা জানি ভারত-চীন সীমান্ত সম্পর্কের ইতিহাসে 45 বছর পর এরকম এক রক্ত ক্ষয় হল। আর এক্ষেত্রে একাধিক উচ্চপদস্থ বৈঠক সম্পন্ন হয়েছে তবে সে ক্ষেত্রে মেলেনি কোনো সুরাহা, কোনো ভাবেই এক্ষেত্রে সমঝোতায় পৌঁছানো সম্ভব হচ্ছে না।তবে ভারত সরকারের তরফ থেকে চীনের বিরুদ্ধে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করতে শুরু করে দেওয়া হয়েছে চীনকে শায়েস্তা করতে যেমনটা দেখা মিলেছে চীনা অ্যাপ ব্যান থেকে শুরু করে ভারতের একাধিক প্রজেক্ট থেকে চীনের নাম সরিয়ে দেওয়া।এর পাশাপাশি ভারতকে আত্মনির্ভর করে তোলার উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আত্মনির্ভর ভারতের ডাক দিয়েছেন।

Related Articles

Back to top button