বলিউডে তৈরি হতে চলেছে সৌরভ গাঙ্গুলির বায়োপিক।মুখ্য ভূমিকায় কে অভিনয় করছেন ?

খুব শীঘ্রই বড়পর্দায় আসতে চলেছে ক্রিকেটজগতের মহারাজ অর্থাৎ সৌরভ গাঙ্গুলীর জীবনী। এবার বলিউডে তৈরি হতে চলেছে দাদার বায়োপিক,এর আগেও ক্রিকেটারদের বায়োপিক মুক্তি পেয়েছে বলিউডে। যাদের মধ্যে রয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনির, শচীন টেন্ডুলকারের ও মহম্মদ আজহারউদ্দিনের নাম। আর এবার বড় পর্দায় নির্মিত হতে চলেছে বাংলার দাদার জীবনের গল্প। এর আগেও বেশ কয়েকবার জল্পনা উঠেছিল বাংলার ক্রিকেট আইকন সৌরভ গাঙ্গুলীর বায়োপিক কে নিয়ে,প্রযোজক একতা কাপুর একবার কথাও বলেছিলেন এই নিয়ে দাদার সাথে তবে তখন সম্ভব হয়ে ওঠেনি বায়োপিক তৈরি করা।

আর এবার দাদার জীবন কাহিনী কে বড় পর্দায় তুলে ধরার দায়িত্ব নিয়েছেন কারণ জোহর। গত শুক্রবার দিন আইপিএল সংক্রান্ত কিছু মিটিংয়ের জন্য মুম্বাই গিয়েছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলী আর সেখানেই সে খবর পেয়ে উপস্থিত হন পরিচালক করণ জোহর। আর তারপরই বলিউডে পরিচালক এবং প্রযোজক করণ জোহর এর সাথে দীর্ঘক্ষন কথাবার্তা হয় দাদার এ বিষয়ে। তারপরই জানতে পারা যায় এই কথা বার্তার মাধ্যমে বায়োপিক তৈরিতে সম্মতি জানিয়েছেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেট অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী।

তবে এখন অনেকের মনে এ কথা আসতে পারে তাহলে দাদার যে মুখ্য ভূমিকায় সেটিতে কোন অভিনেতা অভিনয় করতে চলেছেন। এর আগে একটি অনুষ্ঠানে যখন দাদাকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল যে আপনার বায়োপিকে আপনি কাকে দেখতে চান অভিনয় করতে তার উত্তরে দাদা জানিয়েছিলেন ভবিষ্যতে যদি কোনদিন আমার বায়োপিক তৈরি হয় তাহলে আমার চরিত্রে অভিনয় করবেন হৃত্বিক রোশনই। তবে যে হৃত্বিক রোশন ই যে এখন দাদার বায়োপিকে অভিনয় করতে চলেছেন কিনা সে বিষয়ে এখনো পর্যন্ত কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

দাদার জীবনী নিয়ে তৈরি এই বায়োপিকে থাকতে চলেছে ভারতের সর্বকালের সেরা অধিনায়ক এর ক্রিকেট জীবনের নানান উত্থান-পতন এর ঘটনা। কীভাবে একজন ক্রিকেটার থেকে ক্যাপ্টেন তারপর বোর্ড সভাপতি হয়ে উঠা নানান ঘটনা থাকতে চলেছে এই বায়োপিকে। তবে বর্তমানে এখন নিজের কাজের সাথে সাথে বিভিন্ন শুটিং নিয়ে বেজায় ব্যস্ত রয়েছেন দাদা।তাছাড়া তিনি যে এখন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্ট তাই তার দায়িত্ব আগের তুলনায় দ্বিগুণ বেড়ে গেছে।

যদিও প্রথমদিকে নিজের বায়োপিক তৈরিতে মত ছিল না দাদার তবে দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে করণ জোহর সৌরভ গাঙ্গুলীর সাথে তার বায়োপিক তৈরীর ব্যাপারে কথাবার্তা বলতে থাকেন কিন্তু দাদার সম্মতি না পাওয়ায় সে কাজ পিছিয়ে পড়েছিল। তবে এবার মিলে গেছে সেই সম্মতি, অর্থাৎ এবার খুব শীঘ্রই দাদাগিরির কাহিনী মুক্তি পেতে চলেছে সিনেমার বড় পর্দায়। তাই দাদার বায়োপিকে বড় পর্দায় দেখার জন্য অধীর আগ্রহে বসে রয়েছেন দাদার ভক্তদের সাথে সাথে সকল ক্রিকেটপ্রেমীরা।