কোটি কোটি টাকা পারিশ্রমিক পাওয়া সত্ত্বেও ভাড়া বাড়িতেই বিলাসিতা, কেন এমনটা পছন্দ বলিউড অভিনেত্রী ক্যাটরিনার

বলিপাড়ার (Bollywood) জনপ্রিয় নায়িকাদের মধ্যে অন্যতম হলেন ক্যাটরিনা কাইফ (Katrina Kaif)। নাচ-গান ফিটনেস অভিনয় সব কিছুতেই তিনি প্রথম সারির তারকাদের তালিকায় নাম লিখিয়ে ফেলেছেন। অভিনয় জগতে পা রাখা শুরু করেছেন ২০০৩ সাল থেকে। এখন ২০২১ সাল। ১৮ বছরেও তিনি কিন্তু নিজের মালিকানাধীন কোনো ফ্ল্যাট বা বাড়ি কেনেননি। এখনো মুম্বাইয়ের সেই ভাড়া বাড়িতে রয়েছেন। কিন্তু এমনটা করার কারণ কী?

বলিউডের অভিনেত্রীদের মধ্যে ক্যাটরিনা কাইফ সব সময় লাইন লাইটেই থাকেন। এই অভিনেত্রীর প্রেম, বিচ্ছেদ, ভিডিও সবেতেই নেটিজেনদের মন জয় হয়ে যায়। এই অভিনেত্রীর পুরনো এক ভিডিও এখন পুনর্বার করে ভাইরাল হয়েছে।

katrina kaif

প্রথমদিকে এই অভিনেত্রী বান্দ্রার একটি ফ্ল্যাটে থাকতেন। ২০১৪ সালে রণবীর কাপুরের সাথে প্রেমের সুবাদে কার্টার রোডের সিলভার বালির অ্যাপার্টমেন্ট ভাড়া থাকতে শুরু করেন। তারপরে ২০১৬ সালে রণবীর কাপুরের সাথে তাঁর বিচ্ছেদ হলে সেই বাড়িতে তিনি একাই থাকতেন। ওই বাড়িতে একা থাকার জন্য অভিনেত্রীকে ১৫ লক্ষ টাকা দিতে হয়েছিল।

তারপর সেখান থেকে তিনি বান্দ্রার মাউন্ট মেরি চার্চের কাছে একটি অ্যাপার্টমেন্টে চলে যান। এখন অভিনেত্রী তার বোন ইসাবেলের সাথে মুম্বইয়ের আন্ধেরিতে থাকেন। মাঝেমধ্যে ক্যাটরিনার ভাড়াবাড়ির অন্দরের সাজসজ্জার ফটোও সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করেন। তাঁর বসার ঘরের বাঁকানো সিড়ির উপর উঠে ক্যাটরিনাকে প্রায়ই ছবি শেয়ার করতে দেখা যায়।

দীর্ঘদিন বলিউডে অভিনয়, মডেলিং, ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর, বিজ্ঞাপণে কাজ করেও তিনি অনেক টাকা রোজগার করেছেন। এক একটা ছবির জন্য অভিনেত্রী ৯ থেকে ১০ কোটি টাকা করে নেন।

এত সম্পত্তি থাকা সত্বেও নিজের বাড়ি বা ফ্ল্যাট আজও করেননি। এই বিষয়েই অভিনেত্রীকে নিয়ে নানা প্রশ্ন উত্থাপিত হয়েছে। তাঁর অনেক বিলাসবহুল গাড়িও আছে।