বর্তমানে বাংলা পাকিস্তানে পরিণত হয়েছে লোকসভায় দাঁড়িয়ে রাজ্য সরকারকে হুংকার লকেটের…

চলতি বছর বহু স্কুলে এবার সরস্বতী পুজো করতে দেওয়া হয়নি আর এই ঘটনাকে হাতিয়ার বানিয়ে লোকসভায় দাঁড়িয়ে রাজ্য সরকারকে আক্রমণ করতে বাদ গেলেন না লকেট চট্টোপাধ্যায়। এইদিন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় বলেন বর্তমানে বাংলা এখন পাকিস্তানে পরিণত হয়ে গেছে। আর লোকেটের এরকম এক মন্তব্যের জেরে রাজনৈতিক মহলে উঠেছে সমালোচনার ঝড়। সাধারণত সব স্কুল- কলেজেই সরস্বতী পুজো করা হয় যেখানে সকলে সরস্বতী পুজোতে ধর্মীয় ব্যবধান ভুলে সকল হিন্দু পড়ুয়াদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সরস্বতী পূজায় অংশগ্রহণ করে মুসলমান পড়ুয়ারাও।

তবে চলতি বছর বাংলায় সরস্বতী পুজো কে নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্কের এমনকি বাংলার কয়েকটি বেসরকারি স্কুল ও বিদ্যাপীঠে সরস্বতী পুজো পর্যন্ত করতে দেওয়া হয়নি। যার মধ্যে হাওড়া ময়দান এর একটি বেসরকারি স্কুলের নাম ও হাওড়া চৌহাটা আদর্শ বিদ্যাপীঠে বাগদেবীর আরাধনাতে বাধা পায় ছাত্রছাত্রীরা। এমনকি তাদের দ্বারা পথ অবরোধ ও স্কুলের সামনে বিক্ষোভের পরেও স্কুলের তরফ থেকে সরস্বতী পুজোর অনুমতি মেলে না তাদের।

তবে কেন এক্ষেত্রে সরস্বতী পুজোর জন্য অনুমতি দেওয়া হলো না তার উত্তর মেলেনি স্কুল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে। তবে যাই হোক এবার সেই সরস্বতী পুজোর বন্ধনাতেও লেগে গেল রাজনীতির রং। আর এবার হুগলি বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় এই ঘটনাকে উল্লেখ করে রাজ্য সরকারকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করতে বাদ গেলেন না। এইদিন এই বিজেপি সাংসদ বলেন পাকিস্তানি হিন্দুরা পুজো করার সুযোগ পায় না আর এবার বাংলা পাকিস্তানের সমান হয়ে গিয়েছে দেখছি তাই পশ্চিমবঙ্গে সরস্বতী পুজো করতে বাধা পাচ্ছেন পড়ুয়ারা।

এদিন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কড়া ভাষায় আক্রমণ করে বলেন মুখ্যমন্ত্রী তোষনের রাজনীতি করছে এবং মুসলমানদের সন্তুষ্ট করতে রাজ্যে সরস্বতী পুজো পর্যন্ত বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে।আর বিজেপি সংসদের এরকম এক মন্তব্যের জেরে রাজনৈতিক মহলে শুরু হয়ে গেছে জোর গুঞ্জন এর। অনেকেই বলছেন এখন ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করা হচ্ছে রাজ্যে। তবে এখনো পর্যন্ত তৃণমূলের তরফ থেকে এর কোন পাল্টা প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

Related Articles

Back to top button