অসম ও বাংলার মধ্যে রয়েছে ফারাক! কবে আসা হিন্দু অনুপ্রবেশকারীদের নাগরিকত্ব নিয়ে জানালেন দিলীপ ঘোষ

এবার বারাসাতে গিয়ে নাগরিকপঞ্জি নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই বলে মানুষকে আশ্বস্ত করলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এদিন তিনি বলেন দেশের 2014 সালের 31 ডিসেম্বর পর্যন্ত আসা হিন্দুদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে এরপরে আসা হিন্দুদের ক্ষেত্রে সরকারি চিন্তাভাবনা করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি, কাউকে ভারতের বাইরে যেতে হবে না বলেও আশ্বাস দেন তিনি এই দিন।এদিন তিনি বলেন আতঙ্কিত হওয়ার কোন কারণ নেই।

যেমন কী আসামে এনআরসি চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশের পর থেকে অনেকেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। এই প্রসঙ্গে রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন আতঙ্কিত না হতে।এদিন তিনি আরো বলেন লোকসভায় পাস হওয়া নাগরিকত্ব সংক্রান্ত বিল এর পরিপ্রেক্ষিতে এবার সারা ভারতের হিন্দুরা নাগরিকত্ব পাবেন।এদিন দিলীপ ঘোষ আরো আশ্বস্ত করে বলেন পৃথিবীর যেকোনো প্রান্তে থাকা হিন্দুরা ভারতে আসতে পারেন।

এমনকি তাদের ভারতে থাকার অধিকার আছে বলেন তিনি জানান তাদের নাগরিত্ব দেয়ারও আশ্বাসও দেন তিনি এই দিন। আসাম ও বাংলার মধ্যে ফরাক নিয়েও তিনি তার মতামত প্রকাশ করেন। এই দিন তিনি বলেন এনআরসি নিয়ে আসাম আর বাংলার মধ্যে ফরাক আছে। আর এনআরসি নিয়ে বাংলার মানুষেদের আতংকিত হবার কিছু নেয় বলেই তিনি আশ্বাস করেন। লোকসভায় পাসওয়ার্ড নাগরিকত্ব বিলের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন যে 2014 সালের 30 শে ডিসেম্বরের মধ্যে প্রতিবেশী দেশগুলো থেকে যেসব হিন্দু, বৌদ্ধ, শিখ ,ক্রিশ্চিয়ান ,পার্সি কিংবা জৈনরা ভারতে এসেছেন তাদেরকে ভারতের মধ্যে নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। এদিন তিনি আরো জানান একবার এই বিলটি রাজ্যসভায় পাশ করানো হয়ে গেলেই পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি করার কাজ চালু করে দেবে সরকার।

Related Articles

Close