বড় খবরঃ করোনা পরিস্থিতির জেরে বাতিল চলতি বছরের মাধ্যমিক উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

করোনা পরিস্থিতির জন্য এই বছরের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এক সাংবাদিক বৈঠকের মাধ্যমে আজ এই খবরটি প্রকাশ করেছেন। তবে কিভাবে মাধ্যমিকের- উচ্চমাধ্যমিকের রেজাল্টের নম্বর দেওয়া হবে সেই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে ৩ জন সদস্যের কমিটি।

 

এর আগে বলা হয়েছিল যে ২০২১ সালের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা জুলাই মাসেই অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। করোনা পরিস্থিতিতে কীভাবে পরীক্ষা নেওয়া যেতে পারে সেই বিষয়গুলো খতিয়ে দেখার জন্য তিনজন সদস্যের দল গঠন করা হয়।

বেশ কয়েকটি বৈঠকের পর ওই কমিটির তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে করোনা পরিস্থিতিতে পরীক্ষা নেওয়া ঝুঁকিপূর্ণ। এরসাথে চলতি বছরের পরীক্ষা বাতিলেরও মত পোষন করেন। মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা নেওয়া ঠিক কিনা সে বিষয়ে রাজ্যবাসীর মত জানতে চায় সরকার। রাজ্যবাসীর মত জানানোর জন্য ৩ টি মেল আইডি দেওয়া হয়। মেল করে মতামত জানাতে পারবে আমজনতা। সোমবার দুপুর ২ টো পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়।

দুপুর পর্যন্ত ৩৪ হাজার মেল জমা পড়েছে। এরমধ্যে প্রায় ৭৯ শতাংশ মানুষ পরীক্ষা না নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। এরপরই পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয় রাজ্য সরকার। এই প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, “বিশেষজ্ঞ কমিটিও বাতিলের সুপারিশ করেছিল। রাজ্যবাসীরাও বাতিলের পক্ষেই মত দিয়েছেন। সব দিক বিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত।”