চীনতে শায়েস্তা করতে আমেরিকার তরফ থেকে আবার এক কড়া পদক্ষেপ! এবার আমেরিকায় ঢুকতে দেওয়া হবে না চীনের কোনো বিমান..

যবে থেকে গোটা বিশ্বকে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ জাঁকিয়ে ধরেছে তবে থেকে চীন এবং আমেরিকার মধ্যে সম্পর্ক আরও অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। এই দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা ক্রমশ বেড়েই চলেছে। তবে যেমনটা আমরা জানি এই মুহূর্তে গোটা বিশ্ব জুড়ে যে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়ে পড়ছে তার পেছনে যে চীন রয়েছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না কারণ চীনা সরকার করোনা সম্পর্কে অনেক তথ্য গোপন রেখেছিল গোটা বিশ্বের কাছে, যার ফলস্বরূপ আজ গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা। আর যার দরুন আমেরিকা সরকারের আক্রোশ ক্রমশ বাড়ছে চীনের প্রতি।

এবার আমেরিকা চীনের বিরুদ্ধে আরও এক কঠিন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে, আমেরিকান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে তাদের দেশে চীন থেকে আসা সমস্ত বিমানের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। আর এই নিষেধাজ্ঞা টি আগামী 16 জুন থেকে লাগু হয়ে যাবে এমনটাই ঘোষণা করা হয়েছে আমেরিকান ট্রান্সপোর্ট ডিপার্টমেন্ট এর তরফ থেকে গতকাল বুধবার দিন। দিনদিন আমেরিকাতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ার ফলে দুই দেশের সম্পর্ক আরো খারাপ হচ্ছে।

আর আমেরিকার তরফ থেকে এরকম এক পদক্ষেপ তখনই নেওয়া হল যখন বিশ্বের সবচেয়ে বড় অর্থব্যবস্থার মধ্যে ফাইট নিয়ে বর্তমানে চুক্তি পালন করার জন্য চীন ব্যর্থ হয়েছে। প্রসঙ্গত যেমনটা আমরা জানি আমেরিকার সরকার প্রথম থেকেই দাবি করে আসছে চীনের গাফিলতির কারণে করোনা ভাইরাস আজ গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প সরাসরি চীনের ওপর অভিযোগ এনে এমনটাই দাবি করেছেন এই ভাইরাস ছড়িয়েছে চীন ইচ্ছাকৃতভাবে, তবে শুধু তাই নয় ইচ্ছাকৃতভাবে ভাইরাস ছড়ানোর পর চীনের তরফ থেকে একাধিক তথ্য লুকানো হচ্ছে এমনটাও দাবি করেছেন এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

চীনের উহান ল্যাব থেকে এই করোনা ভাইরাস ছড়িয়েছে এমনটা গুরুতর অভিযোগ এনেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট,আর তারপর এই ল্যাব পরীক্ষা করার জন্য বারবার অনুমতি চাওয়া হয়েছিল যদিও চীনের কাছ থেকে তা মেলেনি।আর অন্যদিকে G-7 দেশের বৈঠকে ভারতকে আমন্ত্রণ জানিয়ে চীন কে বড়ো ঝটকা দেওয়ার প্রস্তুতি নিয়ে ফেলেছে আমেরিকা ইতিমধ্যে।

More Stories
অক্ষয় কুমার করলেন PUBG মোবাইল এর বিকল্প ঘোষণা FAU-G, যার উপার্জিত 20% যাবে ভারতীয় সেনাতে