১ অক্টোবর থেকে আসছে বড় বদল! অফিস টাইম হবে ১২ ঘন্টার, বদল আসতে চলেছে বেতন কাঠামোতেও

শ্রম আইনে বদল আনার তোড়জোড় শুরু করছে কেন্দ্রের মোদী সরকার। চাকুরীজীবিদের জীবনে আগামী অক্টোবর মাস থেকে হতে চলেছে আমূল পরিবর্তন।১ লা অক্টোবর থেকে শ্রম আইনে পরিবর্তন আনতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। ইতিমধ্যে শুরু ও হয়ে গিয়েছে সেই আইন বদল এর কাজ। এই আইনে কর্মীদের ১২ ঘন্টা কাজ করার কথা বলা হয়েছে। সেইসঙ্গে বেতনের ক্ষেত্রেও আনা হচ্ছে বড়সড় বদল। নয়া এই আইন ১ অক্টোবর থেকে লাগু হলে সংগঠিত ক্ষেত্রের অফিসে চাকরি করা কর্মীর ‘টেক হোম’ বেতন কমতে পারে।এর পাশাপাশি কাজ করার সময় সীমা, ওভারটাইমে অতিরিক্ত বেতন, ছুটি বহু কিছু বদলে যেতে পারে।

লেবর মন্ত্রক সূত্রে জানানো হয়েছে, ২০১৯ সালের আগস্ট মাসে সংসদে তিনটি লেবার কোড সংক্রান্ত নিয়মে বদল আনার কথা বলা হয়েছিল। এই তিনটি লেবার কোড হল ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিলেশন,কাজের সুরক্ষা, হেলথ ও ওয়ার্কিং কন্ডিশন অ্যান্ড সোশ্যাল সিকিউরিটি। এরপর ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে সেই নিয়ম পাশ ও হয়ে গিয়েছিল। আর সেই সূত্রেই সরকার চেয়েছিল, ১লা জুলাই থেকেই লেবর কোডের এই নয়া নিয়ম কার্যকর করতে। কিন্তু রাজ্যগুলি এই নিয়ম কার্যকর করতে সময় চাওয়ায় লেবার কোড এর নতুন নিয়ম ১ অক্টোবর পর্যন্ত পিছিয়ে দেওয়া হয়।

এবার চলুন এক নজরে দেখে নেওয়া যাক নতুন ড্রাফ্ট নিয়মে কোন কোন ক্ষেত্রে কী কী বদল আনা হচ্ছে :-

১) কাজের সময়সীমা বাড়িয়ে তা ১২ ঘন্টা করার কথা প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

২) ফলোতো সাপ্তাহিক ছুটি বাড়ানোর কথাও বলা হয়েছে।

৩) কোন কর্মীকে ৫ ঘন্টার বেশি একটানা কাজ করানো যাবে না।

৪) প্রত্যেক ৫ ঘন্টা পর কর্মচারীদের ৩০ মিনিটের বিরতি দিতে হবে।

৫)১৫ থেকে ৩০ মিনিটের অতিরিক্ত কাজ ও ৩০ মিনিট হিসাবে ওভারটাইমের অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে।

৬) বেসিক বেতন বাড়ানোর কথা বলা হয়েছে।

৭) বেসিক স্যালারি বাড়লে পিএফ এবং গ্র্যাচুইটির জন্য বেশি টাকা কাটা হবে।

এই নয়া নিয়মে বেশিরভাগ কর্মীদের স্যালারি স্ট্রাকচারে ও আসতে চলেছে বিরাট রকমের ঘোর বদল। নতুন এই নিয়মে কর্মীদের কাজের সময়সীমা বাড়ানোয় লেবার ইউনিয়ন ১২ ঘন্টা কাজ করার বিষয়ে তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছে।