BIG BREAKING-রাতারাতি ঘোষণায় ফের বদল, অফিস খোলা নিয়ে নতুন বার্তা জারি মুখ্যমন্ত্রীর

গতকালই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন এবার আগামী 8 জুন থেকে রাজ্যজুড়ে সমস্ত সরকারি বেসরকারি কর্মসংস্থান গুলি খুলে দেওয়া হবে এবং সেক্ষেত্রে কর্মসংস্থান গুলিতে 100% কর্মীদের নিয়েই কাজকর্ম শুরু করা হবে, তবে মুখ্যমন্ত্রীর এরকম এক ঘোষণার 6 ঘণ্টার ও কম ব্যবধানে বদলে গেল রাজ্যের সরকারি ও বেসরকারি অফিস খোলার নিয়মের বিধি। গতকাল বিকেল 4:00 টে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় রাজ্য সরকারি ও বেসরকারি অফিস খোলা নিয়ে 100% কর্মী নিয়েই চালু করার পক্ষে সওয়াল করেছিলেন।

আর সেই ঘোষণার 6 ঘন্টা পেরোনোর আগেই রাত্রি নটার সময় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তার টুইটার অ্যাকাউন্টে তিনটি টুইট করেন যেখানে অফিস খোলার বিধি নিয়মে নতুন বার্তা ঘোষণা করেন। যেখানে তিনি আগের ঘোষনার 100% কর্মী নিয়ে কাজ করার বদলে যতটা সম্ভব বাড়িতে থেকেই কাজ করানোর পরামর্শ দিয়েছেন। গতকাল বিকেলে যখন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যজুড়ে সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি অফিসগুলিতে 100% কর্মী নিয়ে কাজ করার কথা ঘোষণা করেন তারপর থেকেই এই বিষয়ে একাধিক প্রশ্ন তুলতে শুরু করে বিরোধীরা।

যেখানে রাজ্যের বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ কেউ এই বিষয়ে প্রশ্ন তুলতে দেখা যায়, তিনি বলেন মুখ্যমন্ত্রী অফিস খুলে দেবার ঘোষণা করেছেন কিন্তু অফিস যাওয়ার জন্য কর্মীরা ট্রেন-মেট্রো কীভাবে পাবেন যদি তা না চলে। তবে শুধু দিলীপ ঘোষেই নয় তার পাশাপাশি বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী কেউ এই বিষয় নিয়ে প্রশ্ন তুলতে দেখা যায়। তবে যাই হোক মুখ্যমন্ত্রীর এরকম এক ঘোষণার পরেই এই বিষয় নিয়ে একাধিক প্রশ্ন উঠতে শুরু করে, রাজ্যজুড়ে এই ঘোষণাকে নিয়ে বেশ বিতর্কের ও সৃষ্টি হয়।

রাজ্যজুড়ে সৃষ্টি হওয়া সেই বিতর্ককে রুখতে গতকালই রাত্রি 9 টা 21 মিনিটে মুখ্যমন্ত্রী আবারো টুইট করেন যেখানে তিনি নিজেদের অবস্থান জানান। মুখ্যমন্ত্রী যে টুইটটি করেন সেখানে তিনি লিখেন, আগামী 8 জুন থেকে 70% কর্মী নিয়ে সরকারি অফিসের সমস্ত কাজকর্ম করা হবে।অর্থাৎ এর আগে যেখানে 50% কর্মী নিয়ে কাজকর্ম করা হচ্ছিল সেটিকে বাড়িয়ে এখন 70 শতাংশ করা হয়েছে।অন্যদিকে বেসরকারি সংস্থার উদ্দেশ্যে জানান বেসরকারি সংস্থারা তাদের কত % কর্মীকে নিয়ে কাজ শুরু রাখবেন তা তারা নির্ধারিত করবেন। শেষমেষ সরকারি ও বেসরকারি অফিস খোলা নিয়ে এই বার্তা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার পাশাপাশি যতটা সম্ভব বাড়ি থেকে কাজকর্ম করার পরামর্শও দিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন :