Uncategorized

তৃণমূল দলের মধ্যে বড়সড় ভাঙ্গন!দল ছেড়ে পঞ্চায়েত প্রধান সহ ৫০০ জন কর্মী যোগদান করল বিজেপিতে।

ফের বড়সড় ভাঙ্গনের মুখে পড়তে হল রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস কে। এবার তৃণমূল ত্যাগ করে সবাই কে দেখা গেল বিজেপির দিকে ঝুঁকে পড়তে। যেসমস্ত নেতারা তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করলেন তাদের মধ্যে রয়েছে প্রাপ্তন পঞ্চায়েত প্রধান হল বেশ কয়েকজন কারেন্ট নেতাকর্মী যারা এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূলের হয়ে লড়াই করে জয়লাভ করেছেন।
ধানপোতা পঞ্চায়েত যেটি অবস্থিত দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলায় সেখানেই এই দল বদলের ঘটনা টি ঘটেছে। দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার বিজেপির সাংগঠনিক কার্যালয়ে এই দল বদলের অনুষ্ঠানটি ঘটে। বুধবার সেখানকার মোট তিনটি বুথের ৫০০ জন কর্মী তৃণমূল ছেড়ে যোগদান করেন বিজেপিতে।

ত্রিদিপ মন্ডল যিনি জেলার সাংগঠনিক সভাপতি এই দিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তিনি। তিনিই বিজেপির দলীয় পতাকা তুলে দেন তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদান করা প্রাপ্তন তৃণমূল নেতা সৌমেন্দ্রনাথ দাস সহ বাকি সদস্যদের হাতে। তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করার পর সেই সমস্ত নেতাদের দাবি, তৃণমূল কংগ্রেসের মধ্যে দুর্নীতি শুরু হয়েছে গত ২০১৩ সাল থেকে। তৃণমূল কংগ্রেস সবচেয়ে বেশী দুর্নীতিযুক্ত দলে পরিণত হয়েছে। এই ব্যাপারে দলের উচ্চ পর্যায়ের নেতাদের কাছে আবেদন করার পরও এর কোনো সুরাহা হয় নি। কারণ এখন সকলেই যুক্ত হয়ে গিয়েছে দুর্নীতির সাথে। আর এই দুর্নীতির ফলে অর্থাৎ দুর্নীতির ভাগাভাগি নিয়ে প্রায় দিনই দলের নেতামন্ত্রীদের মধ্যে কিছুনা কিছু ঝামেলা লেগেই থাকে।

আর ঠিক এই সকল কারণের জেরেই গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূলের হয়ে ভোটে না লড়ার সিদ্ধান্ত নেন সৌমেন্দ্রনাথ দাস। এবং তিনি লড়াই করেন নির্দল প্রাথী হয়ে। এবং তিনি শতাধিক ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে দেন স্থানীয় তৃণমূল নেতাকে। আর এবার এই তৃণমূল নেতা যোগদান করলেন বিজেপিতে।হঠাৎ করে এইভাবে একেবারে তৃণমূল ত্যাগ করে নিজের এত এত কর্মীসমর্থকদের নিয়ে বিজেপি তে যোগদানের ফলে সেই এলাকায় যে বিজেপি যথেষ্ট শক্তিশালী হয়ে গেল সেটা ভালোভাবেই বোঝা যাচ্ছে। অপরদিকে এখানে তৃণমূলের আর কোনো সংগঠনিক শক্তি রইল না।

#অগ্নিপুত্র

Related Articles

Back to top button