‘৭৫’- এর বড় ঘোষণা নমোর, এবার ৭৫ সপ্তাহ ধরে দেশে চলবে ৭৫ টি বন্দে ভারত এক্সপ্রেস

৭৫ তম স্বাধীনতা দিবস কে স্মরণীয় করে রাখতে বড় ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। লালকেল্লা থেকে ভাষণে তিনি বলেছেন, দেশের অগ্রগতির কথা। এর পাশাপাশি তিনি বলেছেন, আগামী দিনের দেশ কোন কোন দিকে এগোতে চলেছে বা কোন লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে এগোচ্ছে।প্রধানমন্ত্রীর কথায়, বিকাশ হতে হবে সবার জন্য। দেশের কোন কোনা যেন বাদ না যায়, কোন ব্যক্তি যেন বাদ না যায়। আসুন দেখে নেওয়া যাক,

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভাষণ থেকে উঠে আসা দেশ সম্পর্কিত দশটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য—

১. মেয়েদের জন্য খুলে দেওয়া হচ্ছে দেশের সেনা স্কুল। এত দিন পর্যন্ত সেনা স্কুলগুলিতে কেবল মাত্র ছেলেরাই পড়াশোনা করতে পারতেন।টোকিও অলিম্পিকে মেয়েদের অভূতপূর্ব ফলাফলকে কুর্নিশ জানানোর পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এদিন সেনা স্কুলগুলিতে মেয়েদের পড়াশোনা করার ছাড়পত্র দিলেন।

২. ভারত বর্তমানে তিন বিলিয়ন ডলার এর থেকেও বেশি মোবাইল রপ্তানি করছে। দেশীয় পণ্য সারা বিশ্বে ছড়িয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে স্টার্টআপ সংস্থাগুলিকে কর ছাড় সহ অন্যান্য সুবিধা দেওয়ার ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

৩. দেশের ক্ষুদ্র চাষীদের উন্নতি হলো আসল লক্ষ্য, জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ভারতের সকল কৃষকদের জন্য একাধিক প্রকল্প আগেও এনেছেন এবং আগামী দিনেও আনবেন বলে জানান।

৪. দেশের পরিবহন ব্যবস্থাকে নতুনরূপে নতুনভাবে পরিকাঠামো গড়ে তোলার প্রশ্নে ইতিমধ্যে মাইলস্টোন তৈরি করে ফেলেছে ভারত । ভারত আজ যুদ্ধবিমান, যুদ্ধজাহাজ বানাচ্ছে বলেও ভাষণে উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী। চেন্নাইয়ে ইন্টিগ্রাল কোচ ফ্যাক্টরির তত্ত্বাবধানে তৈরি হয়েছে ‘বন্দে ভারত এক্সপ্রেস’। ভারত সরকারের ‘ মেক ইন ইন্ডিয়া ‘ প্রকল্পের মাধ্যমে আগামী ৭৫ সপ্তাহে দেশের প্রতিটি জায়গা জুড়তে চলেছে ৭৫ টি বন্দে ভারত ট্রেনের মাধ্যমে।

৫. কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিলের পর ফিরছে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া অর্থাৎ নির্বাচন।

৬. আগামী 25 বছরে ভারতে আসবে ‘অমৃত কাল’। আগামী 25 বছরের মধ্যে দেশে কোন রকম পরিকাঠামোর অভাব থাকবে না।

৭. আত্মনির্ভর ভারত গড়ে তোলার ক্ষেত্রে দেশের নাগরিকদের ও যোগদানের প্রয়োজন বলে জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

 

৮.আয়ুষ্মান ভারত,উজ্জ্বলা যোজনা,পেনশন যোজনা, আবাস যোজনা সহ অন্যান্য যেসকল সরকারি প্রকল্প রয়েছে সেগুলিকে দেশের প্রতিটি কোনায় পৌঁছে দেওয়ার কথা জানান লালকেল্লা থেকে।

৯. করোনা মোকাবিলায় দেশের প্রথম সারির করোনা যোদ্ধাদের ভূয়সী প্রশংসা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর।

১০. প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী প্রতিবছর ১৪ই আগস্ট ‘বিভাজন বিভীষিকা স্মরণ দিবস ‘ হিসাবে পালন করা হবে বলে ঘোষণা করেন।