কেন্দ্রের বড় ঘোষণা! এবার থেকে প্রতি ছয় মাস অন্তর অন্তর বাড়ানো হবে বেতনের পরিমাণ, তিন কোটি কর্মচারী উপকৃত হতে চলেছেন এর দরুন…

সকল কর্মচারীরা সারাবছর মন দিয়ে কাজ করে থাকেন যাতে তাদের ভবিষ্যতে মাইনে বাড়ে তার জন্যই। তবে এবার সেই সকল কর্মচারীরা আরো দৃঢ় প্রতিজ্ঞ হয়ে কাজ করবেন কারণ এবার যে খবরটি বেরিয়ে আসছে সেখানে জানতে পারা যাচ্ছে এবার থেকে বছরে একবার নয় দুইবার বাড়তে চলেছে সেসব কর্মচারীদের বেতন। হ্যাঁ ঠিকই শুনেছেন একবার নয় এবার থেকে বছরে দুবার বাড়তে চলেছে মাইনে, ঠিক একেবারে সোনায় সোহাগার মতো ব্যাপার।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী জানতে পারা যাচ্ছে এবার থেকে যারা ইন্ডাস্ট্রিয়াল সেক্টর এ কাজ করে থাকেন তাদের ক্ষেত্রে প্রতি ছয় মাস অন্তর অন্তর বেতন বাড়ানো হবে। এই পদক্ষেপটি কেন্দ্রীয় সরকার এই কারণেই নিয়েছেন যাতে মুদ্রাস্ফীতির মোকাবেলা করা যায়।আর নতুন এই পরিকল্পনা অনুযায়ী যেভাবে মুদ্রাস্ফীতি পারবে সেই অনুযায়ী কর্মচারীদের বেতন বাড়ানোর কথা ভাবা হয়েছে। আরো বলে রাখি শিল্প খাতে কর্মরত প্রায় তিন কোটি কর্মচারীর ছয় মাস অন্তর অন্তর বেতন বাড়বে এই বেতন মুদ্রাস্ফীতির হারের ওপর নির্ভর করবে।

যাতে কর্মচারীদের ওপর মুদ্রাস্ফীতির প্রভাব না পড়ে তার জন্যই নেওয়া হয়েছে এই পদক্ষেপ। এই নিয়ে বিজনেস স্ট্যাটাসের একটি প্রতিবেদনের পরিকল্পনা কথা জানানো হয়েছে প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে সরকারের একটি উচ্চ স্তরের কমিটি শিল্প খাতে কর্মরত কর্মচারীদের জন্য নতুন একটি উপভোক্তা মূল্য সূচক তৈরি করেছে।আর এবার থেকে সেই কর্মচারীদের মূল্যবৃদ্ধির ভাতা সেই সুযোগের ওপরই নির্ভর করবে। তাছাড়া এই বিষয়ে গত 27 এ ফেব্রুয়ারি শ্রম ও কর্মসংস্থান উপদেষ্টার নেতৃত্বে একটি গুরুত্বপূর্ণ সভার আয়োজন করা হয়েছিল যেখানে এই কর্মরত কর্মচারীদের জন্য সূচক এর নতুন সিরিজ আনার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

তবে এরই সাথে বলে রাখি কেন্দ্র সরকারের এই নতুন পরিকল্পনা দরুন এবার উপকৃত হতে চলেছে তিন কোটি কর্মচারী। এমনি তে CPI-IW সূচকের মাধ্যমে কর্মচারীদের ভাতা বৃদ্ধির সিদ্ধান্তটি নেওয়া হয়ে থাকে। কিন্তু 2001 এর পর থেকে এই সূচক এর মধ্যে কোন সংশোধন করা হয়নি, যেখানে এই সুযোগটিকে প্রতি পাঁচ বছর অন্তর অন্তর সংশোধন করার প্রয়োজন থাকে।তাই পুরনো সূচকের মাধ্যমে নতুন গত দশকের গ্রাহক বিন্যাসে অনেক পরিবর্তন এসেছে ফলে বর্তমান গণনা সামঞ্জস্যপূর্ণ হওয়া মুশকিল রয়েছে এতে। তাই এবার কর্মচারীদের বেতন বাড়ানোর উদ্দেশ্যে নতুন করে CPI-IW সূচক সিরিজ আনার কথা বলা হয়েছে।