দেশনতুন খবরবিশেষলাইফ স্টাইল

ডাইভিং লাইসেন্স নিয়ে বড় ঘোষণা! হতে চলেছে বড় পরিবর্তন, না জানলে পড়তে পারেন বড় বিপদে..

ড্রাইভিং লাইসেন্স বর্তমান দিনে কতটা গুরুত্বপূর্ণ নথি তা আমরা সবাই জানি। আপনাদের জানিয়ে দিই, মোটর ভিকেলস আইন অনুযায়ী যেকোনো মোটর চালিত যানবাহন চালানোর জন্য ড্রাইভিং লাইসেন্স অতি গুরুত্বপূর্ণ নতি হিসেবে ধরা হয়। তবে টোটো বা ই-রিক্সা চালানোর ক্ষেত্রে কোন ড্রাইভিং লাইসেন্সের প্রয়োজন পড়ে না। ড্রাইভিং লাইসেন্স সাধারণত তিন ধরনের হয়। আসুন আমরা এবার এই তিন ধরনের ড্রাইভিং লাইসেন্স সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিই —

1. টু হুইলার ড্রাইভিং লাইসেন্স – যে সমস্ত ব্যক্তিদের কাছে টু হুইলার ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকবে তারা কেবলমাত্র দু চাকার যানবাহন চালাতে পারবেন।
2. ফোর হুইলার ড্রাইভিং লাইসেন্স – এই ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রাপ্ত চালকরা কেবল মাত্র চারচাকা গাড়ি চালাতে পারবে। তবে এই লাইসেন্স মালগাড়ি বা পণ্যবাহী গাড়ি চালানোর জন্য বৈধ হিসেবে গণ্য করা হয় না।
3. হেভি ভেহিকেল ড্রাইভিং লাইসেন্স – এই ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রাপ্ত চালকেরা যেকোনো ভারী গাড়ি যেমন ট্রাক, ক্রেন, জেসিবি মত যানবাহন চালাতে পারবে। এছাড়া যেকোনো ধরনের পণ্যবাহী গাড়ি চালানোর অনুমতি থাকবে এই লাইসেন্সে।

এই সমস্ত প্রকারের ড্রাইভিং লাইসেন্স পেতে হলে ব্যক্তি কে লিখিত পরীক্ষা এবং প্র্যাকটিক্যাল পরীক্ষা দিতে হয়। যদি পরীক্ষায় পাশ করে তাহলে সেই লাইসেন্স দেওয়া হয় তাছাড়া লাইসেন্সের জন্য আবেদন কারী ব্যক্তিকে লাইসেন্স দেওয়া হয় না। সম্প্রতি সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক মন্ত্রক আগামী শুক্রবার মোটর ভেহিকেল নিয়মে সংশোধন করার জন্য এক বিজ্ঞপ্তি জারি করে। সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক মন্ত্রক কেন্দ্রীয় মোটর ভেহিকেল নিয়ম 1989 এর ফর্ম 1 এবং ফর্ম 1(এ) নিয়মের সংশোধন করার জন্য বিজ্ঞপ্তি জারি করে।

এই নিয়মে একটা জিনিস পরিবর্তন করা হয় যা হল, আগে কালার ব্লাইন্ডেরদের ড্রাইভিং লাইসেন্স দেওয়া হতো না। কিন্তু এই নতুন নিয়মে এবার থেকে হালকা এবং মাঝারি কালার ব্লাইন্ড ব্যক্তিরা ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য আবেদন করতে পারেন। তবে এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে চিকিৎসকদের পরামর্শ নেওয়া হয়। চিকিৎসকরা এতে অনুমতি দেওয়ার পরেই কেন্দ্রের তরফ থেকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আপনাদের জানিয়ে দি কালার ব্লাইন্ড মানে যে সমস্ত ব্যাক্তিরা সঠিকভাবে রং চিনতে পারেন না। কোনো ব্যাক্তি যদি সম্পূর্ণ কালার ব্লাইন্ড হন তাহলে ট্রাফিক সিগন্যালের সংকেত সঠিকভাবে বুঝতে পারবেন না।

Related Articles

Back to top button