লোকসভা ভোটের আগে কৃষি ঋণে বড় চমক দিতে চলেছে মোদি সরকার! এবার থেকে….

আমাদের ভারতবর্ষ হল কৃষিভিত্তিক দেশ। ভারতের জিডিপি বাড়ায় কৃষির এক বিরাট হাত রয়েছে ।শুধু তাই নয়, ইতিমধ্যেই সব রাজনৈতিক দলগুলি কৃষকদের একটু বেশি প্রাধান্য দিচ্ছে, আর দেবেই না কেন , সামনে আসছে লোকসভা নির্বাচনী ভোট । আর কৃষকদের স্বার্থ এখন রাজনৈতিক মহলে ভোটে জেতার চাবিকাঠি হয়ে দাঁড়িয়েছে। যেখানে রাহুল গান্ধী এই হাতিয়ারকে কাজে লাগিয়ে ৩ টি রাজ্য জয়লাভ করেছে সেখানেই এবার এই হাতিয়ারকে নিয়ে লোকসভা ভোটে নামছে মোদি সরকার। বর্তমানে কৃষকদের ঋণ মুকুব করা একটি ফ্যাশন হয়ে গেছে। আর বিগত কয়েক মাস ধরেই কংগ্রেস সরকারের হাত ধরে এই ফ্যাশন চলে আসছে ।


কৃষকের স্বার্থে এই ঋণ মুকুব এর প্রতিশ্রুতিকে কেন্দ্র করে রাহুল গান্ধী তিনটি রাজ্যে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন। আর এই ফ্যাশনকে কেন্দ্র করে মোদি সরকার কৃষকদের জন্য নিয়ে আসতে চলেছে এক বড় চমক। সংবাদ সূত্রে খবর ঋণ মুকুব নয় মোদি সরকারের পরিকল্পনা কংগ্রেস সরকারের দিকে একটু ভিন্ন। যেখানে বলা হচ্ছে, বিনা সুদে কৃষকদের স্বার্থে ঋণ দেবে কেন্দ্রীয় সরকার। সামনে কয়েক মাসে পেশ হতে চলেছে বাজেট, আর এমনটাই জানা যাচ্ছে এই বাজেটে এই বিনা সুদে ঋণ দেওয়ার প্রকল্পের ঘোষণা করা হবে । ২০১৯-এর ফেব্রুয়ারি মাসের হওয়া বাজেটে বীমা, স্বাস্থ্য, কর ছাড় সহ বিপুল পরিমাণ ছাড় থাকবে কৃষি ঋণে।তবে এগুলির মধ্যে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ কৃষিঋণ হবে বলে মন্তব্য করছেন বিশেষজ্ঞরা। এছাড়াও সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, মোদি সরকার কৃষকদের ব্যাংক একাউন্টে সরাসরি টাকা পাঠানোর পরিকল্পনা নিচ্ছে।


যদিও , সরকারের পক্ষ থেকে এই ঋণ কোন শর্তে বা কিসের পরিপ্রেক্ষিতে দেবে, আর কত পরিমান টাকা ঋণ দেওয়া হবে তা নিয়ে এখনো বিশেষ কিছু জানা যায়নি। যদিও সাংবাদিক সংস্থা অর্থ মন্ত্রীকে মেলের মাধ্যমে এই প্রকল্পের নিয়ে বিশেষভাবে প্রশ্ন করলেও অর্থমন্ত্রকের পক্ষ থেকে এখনো পর্যন্ত কোনো উত্তর উঠে আসেনি। এই প্রকল্প গুলি বাস্তবায়িত করা খুবই দরকার , আর সত্যি সত্যি কেন্দ্রীয় সরকার যদি এই প্রকল্পগুলিকে বাস্তবায়িত করতে পারে তাহলে নিঃসন্দেহে আগত ২০১৯ এর লোকসভা ভোটে নির্বাচনী ভোটে মোদী সরকার ভালো ফললাভ করবে। মোদি সরকারের এই পরিকল্পনা আপনাদের কেমন লেগেছে তা আমাদের অবশ্যই জানাবেন। আপনাদের কি মনে হচ্ছে মোদি সরকার এই পরিকল্পনাটিকে বাস্তবায়িত করতি পারবেন।