নির্বাচনের আগে আবারও বড়োসড়ো মাস্টারস্ট্রোক তৃণমূলের, ভোটে জিতলেই দুয়ারে দুয়ারে পৌঁছে যাবে চাল-গম-রেশন

পশ্চিমবাংলায় এখন নির্বাচনের ঘন্টা বেজে গেছে। প্রতিটি রাজনৈতিক দল তাদের শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে। ভোটে জেতার জন্য প্রতিটি রাজনৈতিক দল কোমর বেঁধে নেমে পড়েছে ভোট ময়দানে। ভোটে জেতার জন্য তৃণমূল সরকার এবার যে প্রকল্পের কথা জানিয়েছে তা ভোট মঞ্চে জয়ের জন্য মাস্টারস্ট্রোক বলা যেতে পারে। এবার ঘাসফুল শিবির ঘোষণা করল যে তারা যদি ভোটে জেতে তবে বঙ্গবাসীর দুয়ারে দুয়ারে পৌঁছে দেবে রেশনের চাল এবং গম।

Bengal assembly election

আম্ফান ঘূর্ণিঝড় তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে বিরোধী শিবির অভিযোগ তুলেছিল আমফানের ত্রাণ এবং রেশন চুরি করেছে তৃণমূল সরকার। এর জন্য বিজেপি শিবির তৃণমূলকে চাল চোর বলে তকমাও দিয়েছিলে। এই অভিযোগকে এড়ানোর জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকার একটি নতুন প্রকল্পের ঘোষণা করেছে। বঙ্গবাসী যাতে ঘাসফুল শিবিরের ভোটের বোতামটি টেপেন সেই জন্য তৃণমূল শিবির মরিয়া হয়ে উঠেছে।

Bengal assembly election

তৃণমূল শিবির থেকে জানিয়েছে যদি তারা পুনর্নির্বাচিত হয় তাহলে রেশনের চাল গম তোলার জন্য বঙ্গবাসীদের আর কষ্ট করে রেশন দোকানে কার্ড নিয়ে যেতে হবে না। রাজ্য সরকারের তরফ থেকে চাল গম দেওয়ার জন্য লোকেরা পৌঁছে যাবে বঙ্গবাসীর দরজায় দরজায়।

১৪ মার্চ নন্দীগ্রাম দিবসে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিধানসভা নির্বাচনের তৃণমূলের ইস্তেহার প্রকাশ করবেন। আর এই ইস্তেহারের চমক হল দুয়ারে রেশনের প্রকল্প। এই প্রকল্প রাজ্য বাসীদের কাছেই একটি চমকপ্রদ হতে পারে। আর একারণেই যদি বঙ্গবাসীরা তৃণমূলকে বাংলার সিংহাসনে বসতে দেয়।

Mamata Banerjee