নতুন খবররাজনৈতিক

লোকসভা ভোটের আগে মুকুল ম্যাজিকের দরুন চাপ বাড়তে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেসের উপর।

জনগণকে নতুন করে মুকুল মুকুল রায় ম্যাজিক দেখাতে চলেছেন। প্রথমে তিনি তৃণমূল সাংসদ সৌমিএ খাঁকে বিজেপিতে যোগদান করিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের শিবিরকে একেবারে কাঁপিয়ে দিয়েছিলেন। তার ওপর তিনি আবার বলেছিলেন, তৃণমূলের আরও 6 জন সাংসদ নাকি বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জন্য রাজি আছেন।আর এর পরে রাজনৈতিক মহলে জল্পনা শুরু হয়। প্রশ্ন ওঠে কে কে রয়েছে মুকুলের নিশানাতে? মুকুল রায়ের ঘনিষ্ঠ শিবিরের কাছে জানা যায় দক্ষিণবঙ্গের 4 তৃণমূল সাংসদ বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জন্য তৈরী আছেন। কিন্তু কবে এই তৃণমূল সাংসদেরা গেরুয়া শিবিরে যোগ দেবেন তা স্পষ্টভাবে বলেননি মুকুল ঘনিষ্ঠরা।

মুকুল ঘনিষ্ঠরা বলেছেন যে চারজন বিজেপিতে যোগ দেবে তারা তৃণমূলের খুব প্রভাবশালী নেতা। কিন্তু এই কদিন ধরে তারা মমতা ব্যানার্জীর সুনজরে নেই।এমন কি এতটাই কুনজরে দেখছে যে 2019 সালে তারা ভোটের টিকিট পাবে কিনা তাও সন্দেহ। তবে সাংসদের নাম বিজেপি মিডিয়ার সামনে এখনই প্রকাশ করতে চাইছেন না। সময় এলে তা মিডিয়ার সামনে আনা হবে বলে জানিয়েছে বিজেপি। মুকুল রায় হলেন রাজ্য বিজেপির নির্বাচন পরিচালন কমিটির চেয়ারম্যান। তবে প্রার্থী নির্বাচনের জন্য রাজ্য দোলে আলাদা করে 15 জন নির্বাচন কমিটি রয়েছে। তারায় ঠিক করবে কে ভোটের টিকিট পাবে। এই কমিটিতে মুকুল রায়ও রয়েছেন।


রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ওই কমিটির হেড রয়েছেন। রাজ্য থেকে কে প্রার্থী হিসেবে দাঁড়াবে তার প্রস্তাব যাবে কেন্দ্রে। এরপর কে ভোটে দাঁড়াবে, কোন কেন্দ্র থেকে তাকে দাঁড় করানো হবে এই সমস্ত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে কেন্দ্র। তবে সৌমিত্র খাঁ এর মতন যে সব ব্যক্তিরা সাংসদ হয়ে বিজেপিতে সদস্য হিসেবে যোগ দেবেন তারা প্রার্থী হয়ে দাঁড়াতে পারবেন নিজের কেন্দ্রে এমনটাই বিজেপির তরফ থেকে জানানো হয়েছে।

Related Articles

Back to top button