শীতকালে প্রতিদিন স্নান করেন ক্ষতি হতে পারে মারাত্মক

আমরা অনেকেই শীতের সকালে স্নান করার কথা ভাবলে ভয়ে আরো কুঁকড়ে যাই। কিন্তু অনেকেই আছেন যারা শীতকালে যেমন আইসক্রিম খেতে পছন্দ করেন ঠিক তেমনি শীতকালে ঠান্ডা জলে স্নান করতে তারা খুব ভালোবাসেন। কিন্তু বিশেষজ্ঞদের মতে শীতকালে প্রতিদিন স্নান না করাই ভালো। কেননা প্রয়োজনের তুলনায় বেশি স্নান করলে ঠান্ডা জল লেগে ত্বকের ক্ষতি হয়।

বিশেষজ্ঞের মতে, মানুষ যে নোংরা পরিস্কার করার জন্যই প্রতিদিন স্নান করে তা কিন্তু নয়৷ বরং সামাজিক রীতি নীতি মানতে অভ্যাসবশত নিজেকে খাপ খাইয়ে নিতে প্রতিদিন স্নান করেন। গবেষণায় দেখা গেছে, আমাদের ত্বক এর মধ্যেই নিজেকে পরিষ্কার করার কৌশল রয়েছে৷ যা স্নানের চেয়ে বেশি কার্যকর৷ যদি আপনি প্রতিদিন শরীরচর্চা না করেন কিংবা আপনার ঘাম না হয়, এমন কাজ না করেন যাতে আপনার শরীর নোংরা হচ্ছে না তাহলে জল থেকে দূরে থাকুন শীতকালে।

 

 

 

 

 

প্রতিদিন গরম জলে স্নান করলে উপকারের চেয়ে ক্ষতি হয় অনেক বেশি। এতে ত্বক আরও বেশি খসখসে এবং শুষ্ক হয়ে যায়। যার ফলে ত্বকের আদ্রর্তা হারিয়ে যায়। ত্বক থেকে যে প্রাকৃতিক তেল নিঃসরণ হয় সেটাও নষ্ট হয়ে যায়। প্রতিদিন যদি স্নান করতে হয়, তাহলে শুকনো সাবান এবং শ্যাম্পু ব্যবহার করতে পারেন৷ সেক্ষেত্রে 10 মিনিটের বেশি স্নান ভুলেও করবেন না।

 

Happy New Year 2021:রাষ্ট্রপতি সহ প্রধানমন্ত্রী মোদী দেশবাসীকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়ে দিলেন এই বিশেষ বার্তা

প্রতিদিন গরম জলে স্নান করলে শুশু ত্বকের ক্ষতি হয়, তা নয়৷ আপনার হাত পায়ের নখের প্রচন্ড ক্ষতি হয়। নখের মধ্যে দাগ হয়ে যায়। নখগুলো ফেটে ফেটে যায়। কারণ স্নান করার সময় নখ প্রচুর পরিমাণে গরম জল শোষণ করে৷ এর ফলে ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতা এবং তৈলাক্ত ভাব হারিয়ে যায়৷

 

জল প্রাকৃতিক সম্পদ৷ একজন মানুষ প্রতিদিন স্নান করার জন্য 25 থেকে 50 লিটার পর্যন্ত জল খরচ করে থাকে। শাওয়ারে স্নান করলেও প্রচুর পরিমাণে জলের অপচয় হয় যা আমাদের আদতেই কোন কাজে লাগে না। এছাড়া প্রতিদিন স্নান করলে শীতের হাত থেকে নিজেকে রক্ষা করতে ত্বক এক ধরনের ব্যাকটেরিয়া উৎপাদন করে, যে ব্যাকটেরিয়া আমাদের শরীরের পক্ষে ভালো নয়। সুতরাং শীতকালে দুই তিন দিন পরপর স্নান করার অভ্যাস করুন যদি না আপনি প্রবল পরিশ্রমের কাজ না করেন৷ এটা অবশ্যই আপনার ত্বকের জন্য ভালো হবে জানিয়েছেন ত্বক বিশেষজ্ঞরা।