জীবনের থেকে বড় ক্রিকেট নয়! তাই পাকিস্তান সফর বাতিল করলেন বাংলাদেশী ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম…

যেমনটা আমরা জানি বিগত 10 বছর থেকে পাকিস্তানে কোন দেশে খেলতে যেতে চায়নি তাদের ক্রিকেট সিরিজ। যখন থেকে শ্রীলঙ্কা দলের ওপর জঙ্গি হামলা হয়েছে তারপর থেকে পাকিস্তানকে কার্যত একঘরে করে রেখেছিল ক্রিকেট খেলায় দেশগুলি। যদিও পিসিবির কর্তারা এই বিষয় নিয়ে দশ বছর ধরে বিভিন্ন দেশের ক্রিকেট সংস্থাগুলির দরজায় দরজায় ঘুরে তাদের দেশে ক্রিকেট খেলার জন্য আবেদন জানিয়েছিল। তবুও তাদের এই ডাকে সাড়া দেয়নি অন্যান্য দেশ গুলি।

তবে শেষমেষ শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট দলই ক্রিকেট খেলতে গিয়েছিল পাকিস্থানে। তবে এখন পিসিবির চেয়ারম্যান দাবি করে বলছেন পাকিস্তানের নিরাপত্তা কোন প্রকার অভাব নেই তাই বিশ্বের যে কোন দেশেই এখানে ক্রিকেট খেলতে আসতে পারে আর যদি তারা এটা না করে থাকে তাহলে সেটা তাদের একটা ভুল।তবে এখানেই শেষ নয় তিনি আরো দাবি করে বলেন যে শ্রীলংকার বিরুদ্ধে সিরিজের আগে আমরা আমাদের নিরাপত্তার প্রমান দিয়েছি।তাদের প্রমাণ করে দিয়েছি পাকিস্তান এখন কতটা নিরাপদ ক্রিকেট খেলার জন্য।

তবে এবারও আবার একবার নিরাপত্তাজনিত কারণ দেখিয়ে পাকিস্তান সফর থেকে নিজেকে সরিয়ে আনলেন বাংলাদেশি ক্রিকেটার তথা উইকেটরক্ষক- ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম।এই দিন মুশফিকুর সরাসরি জানিয়ে দিলেন তিনি পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে না নিরাপত্তাজনিত কারণে। এইদিন সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি জানান পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে না তিনি আর একথা তিনি জানিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে।

তিনি বলেন তিনি তার মতামত চিঠি দিয়ে ইতিমধ্যে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কর্মকর্তাদের জানিয়ে দিয়েছেন। শুধু টি-টোয়েন্টি সিরিজ থেকে নয় নিরাপত্তাজনিত কারণে গোটা পাকিস্তান সফর থেকে নিজেকে সরিয়ে দিয়েছেন তিনি এ কথা জানান।এছাড়াও মুশফিকুর জানান আমার পরিবার এই বিষয়টিকে নিয়ে খুবই চিন্তিত, এই মুহূর্তে পাকিস্তানের পরিস্থিতি ভালো নয়। যে কোন মুহুর্তে বিপদ ঘটে যেতে পারে সেখানে তাই পরিবারকে কঠিন চিন্তার মধ্যে রেখে আমার পক্ষে পাকিস্তানে গিয়ে খেলা সম্ভব হবে না আর জীবনের থেকে কোনদিনই বড় ক্রিকেট নয়।

আপনাদের সুবিধার্থে বলে রাখি আগামী 24 জানুয়ারি থেকে শুরু হতে চলেছে বাংলাদেশ বনাম পাকিস্তানের মধ্যে তিনটি টি-টোয়েন্টির সিরিজ। আর এই টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষ হওয়ার পরে দুই দলের মধ্যে শুরু হয়ে যাবে টেস্ট সিরিজ। যেখানে টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচটি হবে 7 ই ফেব্রুয়ারি রাওয়াপিন্ডিতে এবং দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে 5 এপ্রিল করাচিতে। তবে যাই হোক নিরাপত্তাজনিত কারণে ওভাবেই পাকিস্তান এগিয়ে সিরিজ খেলতে রাজি হচ্ছেন না এই মুশফিকুর রহিম।