Airtel গ্রাহকদের জন্য দুঃসংবাদ! বাড়তে চলেছে ডাটার দাম,1 জিবি ডাটার দাম হতে পারে 100 টাকা গ্ৰাহকদের তৈরি থাকার কথা Airtel-এর…

Jio আসার পর থেকে ভারতের টেলিকম সেক্টরে প্রতিযোগিতা কতখানি বৃদ্ধি পেয়েছে তা আমরা ভালোভাবেই টের পাচ্ছি, কোন কোম্পানি এক চুলও জায়গা ছাড়তে নারাজ অন্য কোম্পানিকে। মুকেশ আম্বানির সংস্থা জিওকে কড়া টেক্কা দেবার জন্য এয়ারটেল, ভোডাফোন- আইডিয়া তাদের প্ল্যানের দাম কমাতে বর্তমানে বাধ্য হয়েছে। তবে এখন যে খবরটি বেরিয়ে আসছে সেটি Airtel গ্রাহকদের জন্য খুবই খারাপ।আর প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী এবার জানতে পারা যাচ্ছে এবার থেকে এয়ারটেল গ্রাহকদের ইন্টারনেট ডেটা ব্যবহারের ক্ষেত্রে আরো অনেকখানি অর্থ ব্যয় করতে হবে এমনকি তাদের এক্ষেত্রে প্রতি 1 জিবি ডাটার জন্য ব্যয় করতে হতে পারে 100 টাকা পর্যন্ত।

 

আর এমনটা ইঙ্গিত দিলেন খুদ ভারতীয় এয়ারটেল এর চেয়ারম্যান সুনীল মিত্তল। আজ ভারতী এয়ারটেলের চেয়ারম্যান সুনীল মিত্তল জানালেন, আগামী 6 মাসের মধ্যে আরও বেশ কয়েকটি ট্যারিফ প্ল্যানের দাম বাড়াতে চলেছে তাদের সংস্থা। যার দরুন গ্রাহকদেরকে অতিরিক্ত খরচের জন্য তৈরি থাকার কথাও জানিয়েছেন তিনি।তিনি যে বক্তব্য দিয়েছেন সেখানে জানিয়েছেন ভারতের গ্রাহকেরা প্রায় 16 জিবি ডাটা ইউজ করে থাকেন প্রত্যেক মাসে, আর বর্তমানে এই 16 জিবি ডাটা গ্রাহকদের মিলে যায় 160 টাকার মধ্যেই। তবে তিনি জানান এই 160 টাকায় 16 জিবি ডাটার গ্ৰাহকদের পাওয়া উচিত 1.6 জিবি ডাটা।

অর্থাৎ তার হিসেব অনুযায়ী বলা যেতে পারে এক্ষেত্রে গ্রাহকদেরকে 1 জিবি ডাটার জন্য খরচ করতে হতে পারে 100 টাকা পর্যন্ত। তবে তিনি জানান ভারতের কাছে,আমেরিকা-ইউরোপের গ্রাহকদের মতো এজন্য চার থেকে সাড়ে চার হাজার টাকা চাইবো না তবে বর্তমান যা পরিস্থিতি তাতে কিন্তু 16 জিবি ডাটার জন্য 160 টাকা মূল্য ধার্য করা সম্ভব নয় আগামী দিনেও।প্রসঙ্গত যেমনটা আমরা জানি দেশজুড়ে লকডাউন এর কারণে আগের তুলনায় অনেক খানি বেড়েছে দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারের মাত্রা।

 

তাছাড়া এই মুহূর্তে দেশজুড়ে স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকার কারণে দেশের সমস্ত স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশোনা চলছে অনলাইন ক্লাস এর মাধ্যমে, আর পাশাপাশি একাধিক ক্ষেত্রে এখন কাজ করা হচ্ছে ওয়াক ফ্রম হোম (work from home) এর মাধ্যমে তাই এই মুহূর্তে ডাটা একমাত্র ভরসা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই লকডাউন এর মধ্যে একাধিক কোম্পানিকে নতুন নতুন প্ল্যান লঞ্চ করতে দেখা যায় ডাটার ওপর ভিত্তি করে।তবে এখন হঠাৎ করে একেবারে উল্টো কথায় এয়ারটেল এর মুখে শোনা যাচ্ছে। Airtel এর দাবি অল্প দামে বেশি পরিমাণ ডাটা অফার করা ব্যবসার স্ট্র্যাটেজি মাত্র, কিন্তু দীর্ঘক্ষণ ধরে এই পরিষেবা প্রদান করা কঠিন।

বর্তমানে এয়ারটেল গ্রাহকেরা 199 টাকায় প্রতিদিন 1 জিবি করে ডাটা ব্যবহার করে থাকেন তারই সাথে সাথে করে থাকেন আনলিমিটেড কল। আগামী দিনে যদি এইভাবে দাম বাড়ে তাহলে পরবর্তীকালে 28 দিনের জন্য হয়তো ডাটা প্ল্যানের দাম হবে 199 টাকায় 2.4 জিবি ডাটা।অর্থাৎ আগামী দিনে অতিরিক্ত ডাটার জন্য বেশ ভালো রকম অর্থ ব্যয় করতে হতে পারে তারই ইঙ্গিত মিলছে এতে। বিশেষ করে যারা অনলাইনে বেশিক্ষণ সময় কাটিয়ে থাকেন গেম খেলার উদ্দেশ্যেই হোক কিংবা বিভিন্ন ডিজিটাল প্লাটফর্মেই হোক, অথবা সোশ্যাল নেটওয়ার্কেই হোক না কেনো তাদের জন্য এটি নিঃসন্দেহে একটি বড় দুঃসংবাদ হতে পারে।