সত্যিই কী তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন বাবুল সুপ্রিয়! সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে জবাব বাবুল সুপ্রিয়র

২০২৪ সালে লোকসভা ভোটকে কেন্দ্র করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মন্ত্রিসভায় বড় ধরনের রদবদল হয়েছে। সেখানে বেশ কয়েকজন মন্ত্রীর শপথ নিলেও বাদ পড়েছে ৭ জন মন্ত্রীর নাম। এই সাতজন মন্ত্রীর তালিকায় রয়েছেন আসানসোলের বিজেপি সংসদ বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriyo)। মন্ত্রিত্ব হারানোর পর থেকেই বাবুল সুপ্রিয়কে (Babul Supriyo) নিয়ে জল্পনা উঠেছে চরম।

কিন্তু মন্ত্রিসভা থেকে এই সাংসদের নাম বাদ পড়ার সাথে সাথে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের সাথে সংঘাত বারবার প্রকাশ্যে আসছে। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে খবর পাওয়া যায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা থেকে বেরিয়ে আসা এই মন্ত্রী এখন রাজনৈতিক মহল ছেড়ে সংগীতজগতের কাজে মন দিয়েছেন। তবে এখানেই শেষ নয়। এর সাথে তিনি তার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে মুকুল রায় এবং সাথে তৃণমূল শিবিরকে ফলো করা শুরু করেছেন। তারপরে এই প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রয়েছেন জল্পনার কেন্দ্রবিন্দুতে। চারিদিকে গুঞ্জন শোনা যায় তবে কি এই সাংসদ বিজেপিতে শিবির থেকে বেরিয়ে ঘাসফুল শিবিরে নাম লেখাতে চলেছেন?

এই সমস্ত জল্পনা নিয়ে নিজেই তার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে পোস্ট করেন, ‘নানা গুজব আকাশে ভেসে বেড়াচ্ছে। অনেকেই তা শুনেই প্রতিক্রিয়া দিতে, ট্রোল করতে, নোংরা গালিগালাজ করতে ছুটে আসছেন। দয়া করে, এসবের মধ্যে আমাকে জড়াবেন না। আমার করা কাজ দিয়ে আমাকে বিচার করুন, গুজব দিয়ে নয়।’ এরমধ্যে দিলীপ ঘোষও বারবার বাবুলকে কটাক্ষের সুরেই আক্রমণ করছেন। বিজেপির রাজ্য সভাপতি বাবুল সুপ্রিয় কে কটাক্ষ করতে গিয়ে বলেছেন, বাবুল সক্রিয় মন্ত্রী ছিলেন। কিন্তু মন্ত্রী থাকাকালীন তো মুখ্যমন্ত্রী কম গালমন্দ করেননি। এখন হাঁফ ছেড়ে বাঁচলেন বাবুল।’

এরপর বাবুল সুপ্রিয় সরাসরি দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে জবাব দেন। বাবুল সুপ্রিয় তার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে লিখেছেন, ‘রাজ্য সভাপতি হিসেবে ‘মনের আনন্দে’ দিলীপদা অনেক কিছুই বলেন| আবারও বললেন, আমি শুনলাম | কিন্তু এই উক্তিটি কেন করলেন সেটা যদি এবারকার জন্য আমি ‘স্বজ্ঞানে’ বুঝেও না বুঝি তো ক্ষতি কি?? এটাই আমার প্রতিক্রিয়া ! আমার “হাঁফ ছেড়ে বাঁচাতে” দিলীপদা আনন্দ পেয়েছেন এতেই আমি আনন্দিত ! উনি রাজ্য সভাপতি – সবার শ্রদ্ধার পাত্র ! আমিও আন্তরিক শ্রদ্ধা জানালাম প্রিয় দিলীপদাকে !!’

এমনিতেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী থেকে বেরিয়ে আসার পর বাবুল সুপ্রিয় কে নিয়ে গুঞ্জন ওঠে যে তিনি নাকি ঘাসফুল শিবিরে যোগ দিতে চলেছেন। তারপর বাবুল সুপ্রিয় এই সোশ্যাল মিডিয়া ওই পোস্টটি করার পর তৃণমূলে যোগদানের জল্পনা আরও বেড়ে যায়।