ফেসবুক পোস্টে বড় ঘোষণা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর, বিজেপি ছাড়লেন বাবুল সুপ্রিয়

অবশেষে সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটল, যে কথা বেশ কয়েক দিন ধরে রাজনৈতিক মহলে চর্চার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছিল তার আজ অবসান ঘটল। আজ শনিবার দিন ফেসবুকে পোস্ট করে দল ছাড়ার কথা ঘোষণা করলেন স্বয়ং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা আসানসোলের সংসদ বাবুল সুপ্রিয়। তবে এরই পাশাপাশি তিনি এ ঘোষণা করেছেন যে আপাতত তিনি অন্য কোনো দলে যোগ দিচ্ছেন না। তার দাবি সমাজসেবার কাজে নিযুক্ত থাকতে হলে কোন দলের প্রয়োজন হয় না এমনটাই।

তার পাশাপাশি তিনি একথা জানান পরিবারের সকলের সাথে আলাপ আলোচনার মাধ্যমেই এই পদক্ষেপ আমি গ্রহণ করছি এবং রাজনীতির ময়দান থেকে আপাতত সরে দাঁড়াচ্ছি। প্রসঙ্গত, 2014 এবং 2019 সালে আসানসোল থেকে বিরাট ভোটের ব্যবধানে জিতে বিজেপি সাংসদ হয়েছিলেন বাবুল সুপ্রিয় আর দু বার’ই তাকে দায়িত্বভার দেওয়া হয়েছিল প্রতিমন্ত্রীর। কিন্তু পূর্ণ মন্ত্রিত্ব পাওয়া হয়নি তার, তবে এবার মন্ত্রিত্বের মেয়াদকাল পূরণ হবার আগেই তাঁকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

আর তারপর থেকেই তাকে নিয়ে রাজনৈতিক মহলে শুরু হয় জল্পনা তাহলে কী তিনি এবার অন্য দলে যোগ দিচ্ছেন একথাও একাধিকবার শুনতে পাওয়া যায়, তবে সেসব কথায় তিনি পরবর্তীকালে জল ঢালেন। তবে দল থেকে তাকে হাটিয়ে দেওয়ায় তিনি পরবর্তীকালে উষ্মা প্রকাশ করেন। কিন্তু এবার সেই সমস্ত জল্পনায় অবসান ঘটল এবং বিজেপি ছাড়িলেন তিনি। এই দিন তিনি টুইটে লিখেন আগেও রাজনীতি ছাড়তে চেয়েছিলেন তবে অমিত শাহ ও জেপি নাড্ডা তাঁকে বারণ করেছিলেন বলেও তিনি এ দিন দাবি করেন।

তিনি লিখেছেন, ‘বিগত কয়েকদিনে বার বার মাননীয় অমিত শাহ ও মাননীয় নাড্ডাজির কাছে রাজনীতি ছাড়ার সঙ্কল্প নিয়ে গেছি এবং আমি ওঁদের কাছে চিরকৃতজ্ঞ যে প্রতিবারই ওঁরা আমাকে নানাভাবে অনুপ্রাণিত করে ফিরিয়ে দিয়েছেন। আমি তাঁদের এই ভালোবাসা কোনো দিন ভুলবো না আর তাই আবার তাঁদের কাছে গিয়ে সেই একই কথা বলার ধৃষ্টতা আর আমি দেখাতে পারবো না। বিশেষ করে ‘আমার আমি’ কি করতে চায় তা যখন আমি অনেকদিন আগেই ঠিক করে ফেলেছি।