আবারো এই টিমের হয়ে অধিনায়কত্ব করার দায়িত্ব পেলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি, টিমে শামিল রয়েছে বিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মাও…

ভারতীয় ক্রিকেট থেকে যত দিনিই না মহেন্দ্র সিং ধোনি মাঠের বাইরে থাকুন তার স্ট্যাটাস কিন্তু ততটাই বোঝায় রয়েছে যতটা ছিল এর আগে। আর মহেন্দ্র সিং ধোনিকে শুধু তার সমর্থকরাই নয়,তার সাথে তার বিরোধী দলের খেলোয়াড়রাও সম্মান করে থাকেন। শুধু তাই নয় মহেন্দ্র সিং ধোনিই হলেন একমাত্র বিশ্বের এমন একজন অধিনায়ক যিনি আইসিসি তিনটি ট্রফি জিতেছেন। যার ফলে তাঁর কৃতিত্বের মুকুটে আরো একটি রত্ন যোগ হয়েছে।

তবে এখন যে খবরটি মহেন্দ্র সিং ধোনিকে নিয়ে বেরিয়ে আসছে সেটি হল এক অস্ট্রেলিয়ার অফিসের নিউজ অনুযায়ী জানতে পারা গেছে ভারতীয় ক্রিকেটার মহেন্দ্র সিং ধোনিকে এই দশকের ওয়ানডে ক্রিকেটের একাদশের অধিনায়ক হিসাবে নির্বাচিত করা হয়েছে, আর অন্যদিকে টেস্ট ম্যাচে এই দশকের নেতৃত্বের দায়িত্ব হিসাবে বিরাট কোহলিকে দেওয়া হয়েছে। তবে বিরাট কোহলি কে এই দুই ফর্ম্যাটেই দলে জায়গা দেওয়া হয়েছে সে ব্যাপারে কোন আশ্চর্য হবার কিছু নেই।

তবে আজকে যে মূল আলোচ্য বিষয় সেটি হলো অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট বোর্ড নিজেদের দলের ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ওয়ানডের 11 জন প্লেয়ারের নাম ঘোষণা করেছে। যেখানে অস্ট্রেলিয়া ওয়ানডে দলের অধিনায়কত্বের ভার দেওয়া হয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনির উপর। যাদের এই অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট ওয়ানডে একাদশে নাম দেওয়া হয়েছে তারা হলেন-রোহিত শর্মা, হাসিম আমলা, বিরাট কোহলি, এবি ডি ভিলিয়ার্স, সাকিব-আল-হাসান, জোস বাটলার, এমএস ধোনি (দলের অধিনায়ক), মিচেল স্টার্ক, রাশিদ খান, লাসিথ মালিঙ্গা, ট্রেন্ট বোল্ট।তবে এখন আপনার এই ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ওয়ানডে একাদশীর নাম শুনে হয়তো ভাবছেন যে এটাতো অস্ট্রেলিয়া দল নয়।

তবে বলে রাখি এটি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) এই দল বিশ্ব একাদশ হিসাবে বাছায় করা হয়েছে। যার মধ্যে আটটি দেশের খেলোয়াড়দের জায়গা দেওয়া হয়েছে। তারই সাথে জানি দি, এটা এই দশকের অর্থাৎ 2010 থেকে 2019 এর মধ্যে খেলা খেলোয়াড়দের এই দলে শামিল করা যেতে পারে।শুধু তাই নয় এরই সাথে সিএ ওয়ানডের মতোই টেস্ট দলও তৈরি করেছে যেখানে অধিনায়কত্বের ভার দেওয়া হয়েছে বিরাট কোহলির ওপর।এই বিষয়ে অস্ট্রেলিয়া টিম ধোনিকে বাছায় করার কারণটি জানিয়ে দিয়েছেন তারা জানিয়েছেন এই দশকের ক্রিকেট খেলা দেখতে হলে তা এমএস ধোনির যোগদান পরিষ্কার ভাবে দেখা যায়।

তিনি ভারতীয় দলকে 2011 বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন করেছেন তারাই সাথে খ্যাতিনাম করেছেন বিশ্বের দুর্দান্ত ফিনিশার হিসাবে।যদি অস্ট্রেলিয়ার ওয়ানডে ইলেভেনের কথা বলা হয় তাহলে এটা ভালোভাবে লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে এই দলের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভারতীয় খেলোয়াড়রাই জায়গা পেয়েছেন যার মধ্যে রয়েছেন তিনজন ভারতীয় ক্রিকেটার। আর তারপর রয়েছেন দুজন দক্ষিণ আফ্রিকার খেলোয়ার। আর তারপর একজন করে খেলোয়াড় জায়গা পেয়েছেন বাংলাদেশ থেকে, ইংল্যান্ড থেকে, আফগানিস্তান থেকে, অস্ট্রেলিয়া থেকে, নিউজিল্যান্ড আর শ্রীলঙ্কা থেকে।

Related Articles

Close