যেমন কথা, তেমন কাজ! প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা মতোই বাংলাতে পৌঁছে গেল 1000 কোটি টাকা..

বাংলার সুপার সাইক্লোন আমফানের ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিজের চোখে দেখে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আর সেই দিন যে বৈঠক আয়োজিত করা হয়েছিল সেই বৈঠকেই তিনি ঘোষণা করেছিলেন বাংলার এই পরিস্থিতি সামাল দিতে এক হাজার কোটি টাকা দেওয়া হবে কেন্দ্রে তরফ থেকে।প্রধানমন্ত্রী মোদী ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এইদিন হেলিকপ্টারে করে দুর্গত এলাকার পরিদর্শন করেন, চারিদিকে ঘুরে দেখেন এই ঘূর্ণিঝড়ে বিধ্বস্ত এলাকাগুলি যার ফলে প্রাথমিকভাবে প্রধানমন্ত্রীর তরফ থেকে ঘোষণা করা হয় আপাতত এক হাজার কোটি টাকা অর্থ সাহায্য করা হবে।

আবার প্রয়োজন পড়লে পরেও টাকা দিয়ে সাহায্য করা হবে এমনটাও তিনি আশ্বাস দেন। তবে যেমনটা আমরা জানি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘূর্ণিঝড় আমফানের জেরে রাজ্যে যে পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা দেখতে আসার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আহ্বান জানিয়েছিলেন আর সেই ডাকে সাড়া দিয়ে সমস্ত পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে নিজেই রাজ্যে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী।গত শুক্রবার দিন প্রধানমন্ত্রীর তরফ থেকে এই আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা করা হয়েছিল আর এবার অর্থমন্ত্রকের তরফ থেকে সেই পরিমাণ টাকা বরাদ্দের অনুমোদন দিয়ে দেওয়া হল। এর পাশাপাশি আরো একটি কথা জানানো হয়েছে যেখানে বলা হয়েছে বাংলাতে ঘূর্ণিঝড় আমফান যে পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি করেছে তা খতিয়ে দেখতে কেন্দ্রের একটি দল আসবে বাংলাতে। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক থেকে দেয়া এর অর্থ পশ্চিমবঙ্গ সরকার ক্ষতিগ্রস্তদের কাছে দ্রুত সাহায্য পৌঁছে দেবে। এর পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী একথাও প্রতিশ্রুতি দেন যে কেন্দ্রীয় দল রাজ্যে এসে যে পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতির হিসাব করবে প্রয়োজন পড়লে আরো সাহায্য করা হবে বাংলাতে পরবর্তীকালে।