ভারতীয় সেনার আরো এক বড় সাফল্য! মধ্যরাতে সেনার এনকাউন্টারে খতম হলো তিন জঙ্গি..

আরো একবার জঙ্গি নিকেশে সফল ভারতীয় সেনা। জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামার ত্রাল এলাকায় জঙ্গী উপস্থিত রয়েছে এমন খবর পেয়ে সেখানে রওনা হয় ভারতীয় সেনা। আর তারপরই এলাকাটিকে ঘিরে ফেলা হয়। এরপরই শুরু হয়ে যায় এনকাউন্টার পর্ব। দুপুর থেকে চলা এই সংঘর্ষের পর মধ্যরাতে সেনার হাতে খতম হয়ে তিন জঙ্গি। তবে এখন আরো জঙ্গী লুকিয়ে আছে বলে অনুমান সেনার তাই জারি আছে তল্লাশি। এই ঘটনাস্থল থেকে পাওয়া গেছে দুটি একে 47 একটি পিস্তল। সেনার এনকাউন্টারে তিন কুখ্যাত জঙ্গি খতম হয়েছে। ত্রালের এই পিংলিশ গ্রামে তল্লাশি জারি রেখেছে সেনাবাহিনী৷ এছাড়া রবিবার দিন হ্যান্ডওয়ারার বাবাগুন্ড এলাকায় চলা 60 ঘণ্টা এনকাউন্টারের পর সেনার হাতে দুই লস্করের জঙ্গি খতম হয়েছে।

 

তথ্য অনুসারে জানতে পারা গেছে মৃত দুই জঙ্গির মধ্যে একজন ছিল পাকিস্তানি আর একজন ছিল স্থানীয়। তবে এতে দুঃখের বিষয় হলো এই অভিযানের দরুন জঙ্গির গুলিতে সিআরপিএফ এর ইন্সপেক্টর সমেত 5 জন জওয়ান শহীদ হয়েছেন। এবং সেখানে বসবাস করা এক নাগরিকের ও মৃত্যুর খবর পাওয়া যাচ্ছে।আর অন্যদিকে উত্তেজনা বাড়িয়ে কাশ্মীর সীমান্তে সংঘর্ষ বিরতি চুক্তির লংঘন করে চলেছে পাকিস্তান। শুক্রবার দিন রাতে সীমান্তের ওপার থেকে বোমা বর্ষণ শুরু করে পাক সেনা। তবে তার কিছুক্ষণ পরেই জবাব দিতে শুরু করে ভারতীয় সেনারা ও দু’পক্ষের মধ্যে চলে বেশ গোলা গুলি বর্ষণ। আরে ঘটনা দরুন এক কাশ্মীরি পুলিশ অফিসার গুরুতরভাবে জখম হয়ে যান। তাকে ভর্তি করা হয় সেখানের এক স্থানীয় হাসপাতালে তবে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানতে পারা গেছে।

পুঞ্চের শাহপুর সেক্টরে ভারতীয় পোস্ট লক্ষ্য করে এদিন পাক সেনা সীমান্ত থেকে হেভি সেলিং করতে শুরু করে। এর দরুন শাহপুর সেক্টরে গোন্ডরিয়া গ্রামে একটি বোমা ও এসে পড়ে , আর তাতেই স্পেশাল পুলিশ অফিসার হোসেন-শাহ গুরুতর ভাবে জখম হন।