দুঃসময়ে পাশে ছিলেন অভিনেতা, ক্যারাটে কন্যা অমৃতপাল তাঁর স্বর্ণপদক উৎসর্গ করলেন সোনুকে

আবারো সামনে এলো অভিনেতা সহ সোশ্যাল ওয়ার্কার সোনু সুদের নাম। এবার এক অন্যরকম ভাবে সামনে এলো, আরো এক কাহিনী ফুটে উঠলো আমাদের সামনে যাতে করে আমাদের নজরে তার সম্মান আরো একটু বাড়লো বই কমলো না। বিভিন্ন সময় তাঁকে মানুষের পাশে থাকতে দেখা গেছে, এমনকি কিছুদিন আগেই বিহারের এক শিশু কন্যা, যার নাম চৌমুখী, তার অস্ত্রোপচারের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন এই অভিনেতা। কারণ সেই শিশু কন্যা জন্মগ্রহণ করেছিল চারটি হাত এবং চারটি পা নিয়ে। তবে এখানেই শেষ নয় বিগত দু বছর ধরে করোনার প্রকোপে মানুষের যে নিরন্তর সেবার ছবি উঠে এসেছে সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায়।

এবারে ক্যারাটে চ্যাম্পিয়ন অমৃতা পাল কৌর তাঁর স্বর্ণপদক উৎসর্গ করলেন সোন সূদের নামে এবং সেই পদক তুলে দিলেন এই অভিনেতার হাতে। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে কেন? সাউথ এশিয়া চ্যাম্পিয়নশিপে অমৃতা সোনা জিতেছেন, এই খেলাই হত না সোনু সুদ না থাটলে, একটা সময় পায়ের সমস্যা নিয়ে খেলতে পারছিলেন না তিনি, চিকিৎসকরা জানান অবিলম্বে হাঁটুতে তারা অস্ত্রোপচার করতে হবে, এবং সেই অস্ত্র প্রচার করতে প্রয়োজন ছিল প্রচুর অর্থের, সেই অর্থ কোনভাবেই তিনি জোগাড় করে উঠতে পারছিলেন না।

এমন সময়ই তাঁকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন অভিনেতা, তিনি এখন তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ এবং শীঘ্রই তিনি বার্মিংহামে কমনওয়েলথ গেমসে খেলবেন তাও আবার ভারতের প্রতিনিধি হয়ে। তবে তার আগে শনিবারেই সেই স্বর্ণপদক তুলে দিলেন অভিনেতার হাতে যা নিয়ে একপ্রকার উচ্ছসিত অভিনেতা এবং তার সাথে সাথে আপ্লুতও।তিনি বললেন জীবনের সেরা সম্মান প্রাপ্তি হলো তাঁর, কারণ তিনি মনে করেন যখন কোন মানুষের জীবনে তার প্রভাবে ইতিবাচক কিছু ঘটে তখনই তিনি তার জীবনের আসল মানে খুঁজে পান।

আজ অমৃতা নিজের স্বপ্ন পূরণ করতে পেরেছেন ঠিকই, আদতে সোনু বলেন এ স্বপ্ন পূরণ তাঁর হল, অমৃতার হাত থেকে পাওয়া এই পদকের মূল্য অপরিসীম এবং অভিনেতার এসব কর্মকাণ্ডকে ঘিরে তিনি এক অন্য মাত্রা পাচ্ছেন এটি বলাইবাহুল্য।