কাশ্মীর নিয়ে অমিত শাহ নিতে চলেছেন বড়সড় সিদ্ধান্ত, সকাল থেকে হয়ে যাচ্ছে একের পর এক মিটিং…

মঙ্গলবার সকাল গৃহ মন্ত্রণালয়ে বিজেপি নেতা অমিত শাহ যখন তার বৈঠক শুরু করলেন সেই সময় সুগ বুগাহট তীব্র হয়ে গেল। এই বৈঠকটি চলাকালীন সময়ে পুরো রাজ্যে নতুন করে পরিসীমা নির্দেশ করার পক্ষে বিচার করা হলো এবং এর জন্য একটি নতুন করে আয় গঠন করার কথা ও সামনে আসছে। গৃহ মন্ত্রীর পদ সামলানোর সঙ্গে সঙ্গেই অমিত শাহ বারবার বৈঠক ডাকছেন। কিছু সময় আগে মঙ্গলবার তিনি জম্মু-কাশ্মীরের বিষয়ে একটি বৈঠক ডেকেছিলেন এবং এ সম্বন্ধে তিনি অধিকারী এবং সুরক্ষা এজেন্সি দের সঙ্গেও কথা বলেছেন।

সূত্রের খবর অনুসারে কেন্দ্র সরকার জম্মু-কাশ্মীরের ওপর নতুন করে তার পরিসীমা নির্দেশ করতে পারে। ঘাঁটিতে ২০০২ এর পরিসীমার ওপর আটক লেগেছিল, কিন্তু অমিত শাহ এবার ক্ষমতায় আসার পর এই সিদ্ধান্তটির পরিবর্তন করে একটি নতুন সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। মঙ্গলবার সকালে গৃহ মন্ত্রণালয় এ যখন অমিত শাহ বৈঠক শুরু করলেন সেই সময় সুগবুগাহত তীব্র হয়ে গেল।

এই বৈঠক চলাকালীন সময়ই পুরো রাজ্যে নতুন করে পরিসীমা নির্দেশ করার কথা ঘোষণা করা হলো এবং এটির জন্য একটি কমিশন গঠন করার কথা ও সামনে আসছে। এই বৈঠকের পর অমিত শাহ বেশ কয়েকজন মন্ত্রীদের সাথে আলাপ আলোচনা করলেন এছাড়াও তিনি  জম্মু কাশ্মীরের রাজ্যপাল সৎপাল মালিক এর সঙ্গে ও ফোনে এই বিষয়ে চর্চা করলেন। সূত্রের খবর অনুসারে এও জানা যাচ্ছে  যে, যদি নতুন করে পরিসীমা লাগু করা হয় তাহলে, কাশ্মীর রিজনে sc-st দের জন্য বিধানসভায় কিছু সিট সংরক্ষিত করা হবে।

এছাড়াও যদি পরিসীমার কোনরূপ বদল হয়, তবে কেবলমাত্র ঘাঁটি নয়, জন্মু রিজন এর সিট এর মধ্যে নানান পরিবর্তন আসতে পারে। এতে সিটের সংখ্যা, সিটের ক্ষেত্র, এছাড়াও সংরক্ষিত সিটগুলির বদল হতে পারে। আপনাদের জানিয়ে দিই, জম্মু- কাশ্মীর বিধানসভা কে নিয়ে নানান বার বিভিন্ন প্রকার প্রশ্ন উঠে এসেছে।জম্মু বাসীরা নানান বার প্রশ্ন তুলেছে যে বিধানসভায় তাদের উপস্থিতির সংখ্যা অনেক কম, এছাড়াও তারা জানিয়েছে যে,গুজ্জর,বক্কর্বাল এবং গড়ি সমুদায় এর লোকেদের কে sc / st এর শ্রেণীতে দেওয়া হচ্ছে কিন্তু তাদের কোন প্রতিনিধি বিধান সভাতে নেই।

রাজ্য তে নতুন করে পরিসীমা গড়ার ইতিহাস টি কে?

আপনাদের জানিয়ে দিই, রাজ্যে এর আগে পরিসীমা কে নিয়ে ১৯৯৫ এ একটি কমিশন গঠন করা হয়েছিল। সে সময় রি টায়ার্ড জাস্টিস কে. কে. গুপ্তা এর কমিটি একটি রিপোর্ট দিয়েছিলো। এবং এতে বলা হয়েছিল যে রাজ্যে প্রতি ১০ বছর অন্তর অন্তর পরিসীমা নির্দেশ করা উচিত, সেই অনুযায়ী ২০০৫ এ আরেকবার পরিসীমা নির্দেশ করা নির্ণয় হওয়ার ছিল। কিন্তু ২০০২ ফারুক আব্দুল্লাহ সরকার রাজ্যে কোন রকম পরিসীমা নির্ণয়ের উপর ২০২৬ পর্যন্ত আটক লাগিয়ে দিয়েছিল। জম্মু-কাশ্মীরের পিপল অ্যাক্ট ১৯৫৭ এ সেকশন ৪৭(৩) অনুযায়ী পরিসীমা নির্ণয় করা যেতে পারে।

তবে আপনাদের জানিয়ে দিই ,জম্মু-কাশ্মীর বিধানসভায় সর্বমোট সিটের সংখ্যা হলো ৮৭ টি।এর মধ্যে ৪৭ টি সিট এ কাশ্মীর রিজন, ৪ টি সিট লাদাখ রিজন এবং ৩৭ টি সিট জম্মু রিজন এর জন্য। এই ৮৭ টি সিট বাদে ২ টি সিট নমিনেটেড এর জন্য রিজার্ভ রয়েছে।

Related Articles

Close