রাঁধুনী দের পেছনে মাস গেলে খরচ করেন লাখ লাখ টাকা, এই ধরনের খাবার খেতে পছন্দ করেন আম্বানি পরিবার

দেশের সবচেয়ে ধনী পরিবার আম্বানি পরিবার তার ব্যয়বহুল খরচের জন্য বিশ্বব্যাপী পরিচিত। মুকেশ আম্বানির অ্যান্টিলিয়া বিশ্বের সবচেয়ে দামি বাড়ি। এর পাশাপাশি মুকেশ আম্বানির স্ত্রী নীতা আম্বানিও খুব বিলাসবহুল জীবনযাপন করেন। আম্বানি পরিবার বিশ্বের সবচেয়ে ধনী পরিবারের গণনায় আসে। এই কারণে প্রতিদিনই ভাইরাল হয় এই পরিবারের কোনো না কোনো খবর। এটি এমন একটি পরিবার যাদের খাবার থেকে শুরু করে চা পর্যন্ত খবর ভাইরাল হতে থাকে।


আজ আমরা আপনাকে এই পরিবারের খাবার এবং পানীয় সম্পর্কে এমন কিছু তথ্য বলব যা আপনাকে অবাক করে দিতে পারে। মুকেশ আম্বানি পরিবারে যারা কাজ করছেন তাদের ভাগ্য উজ্জ্বল, কিন্তু এখানে চাকরি পাওয়া এত সহজ নয়। তাঁদের বাড়িতে কাজ করার জন্য আপনাকে অনেক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে, তারপর আপনি এত সুযোগ সুবিধা পাবেন, যে উচ্চ পদে থাকলেও কেউ তা পায় না। তাঁদের চায়ের দাম লাখ লাখ টাকা বলে জানা গেছে। আজ আমরা আপনাদের বলব মুকেশ আম্বানির বাড়ির চাকররা কত বেতন পান।


মুকেশ আম্বানি তাঁর চাকরদের সমস্ত সুযোগ সুবিধা সহ ভাল বেতন দেন। রান্নার রিপোর্ট অনুযায়ী, মুকেশ আম্বানির বাড়িতে খাবার রান্না করা প্রতিটি চাকর প্রতি মাসে প্রায় ২ লক্ষ টাকা পান। বিনিময়ে তাদের বেশি কিছু করতে হয় না, কারণ আম্বানি পরিবার একটি নিরামিষ পরিবার এবং সাধারণ খাবার পছন্দ করেন। জানলে অবাক হবেন যে, এখানে যারা রান্না করেন, তাদের ছেলেমেয়েরা বিদেশে পড়াশোনা করছে। যদি আমরা মুকেশ আম্বানির বাড়িতে চাকরের সংখ্যার কথা বলি, তাহলে আম্বানি পরিবারের বাড়িতে প্রায় ১০০০ জন চাকর রয়েছে।


মুকেশ আম্বানির শেফ প্রতি মাসে ২ লক্ষ টাকা বেতন পান এবং আমরা আপনাকে বলি যে, মুকেশ আম্বানির শেফ কোনো বিশেষ ধরণের খাবার তৈরির জন্য এত বেতন পান না, বরং সাধারণ খাবার রান্না করতে হয়, কারণ মুকেশ আম্বানি একজন নিরামিষভোজী এবং তিনি সাধারণ খাবার খেতে পছন্দ করেন।