‘ভারতীয় হিসেবে গর্ব হয় না’, কাশ্মীর-সহ সরকারের একাধিক সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ অমর্ত্য সেন

আমাদের ভারতের একজন অন্যতম নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন। তার কাশ্মীরকে কেন্দ্র করে দেওয়া এক বক্তব্য রাজনৈতিক মহলে চরম চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে । কাশ্মীর বিতর্কে মোদি সরকার কে টার্গেট করে তার কথার তীর দেগেছেন। তার মন্তব্য ভারতের গণতন্ত্র যেভাবে এগোচ্ছে তাতে ভারতীয় হিসেবে তিনি গর্বিত নন। গতকাল এনডিটিভিতে হওয়া এক সাক্ষাতকারের মাধ্যমে অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন কাশ্মীরকে কেন্দ্র করে তার মন্তব্যে তিনি তার ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

তার মন্তব্য, “এটা শুধু কোন সংখ্যাগুরু শাসনের উদাহরণ নয় বরং এটি সাধারণ মানুষের অধিকারের ওপর হস্তক্ষেপ করা। কাশ্মীর কে ঘিরে কোন সিদ্ধান্ত গণতান্ত্রিক হস্তক্ষেপ ছাড়া নেওয়া সম্ভব নয় বলেই আমি মনে করি”। বর্তমান সরকারের নেওয়া একের পর এক পদক্ষেপ কেউ অমর্ত্য সেন ভুল বলে মন্তব্য করেছেন । তিনি এও বলেন,” ভারতীয় হিসেবে আমার একটুও গর্ব হয় না , হবেই বা কি করে ?


ভারত সারা বিশ্বের মধ্যে গণতান্ত্রিক দেশ হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার পর যেসব সিদ্ধান্ত নিয়ে চলেছে তা সমর্থন যোগ্য নয়। যেখানে গত ৫ ই আগস্ট কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিল করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। শুধু তাই নয়, কেন্দ্র সরকার অপরদিকে জম্মু ও কাশ্মীর কে আলাদা আলাদা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে গণ্য করেছে। সরকারের এই পদক্ষেপে জম্মু-কাশ্মীরের অনেক জনসাধারণ ক্ষুদ্র হলেও , অনেক বিরোধী দল সরকারের এই সিদ্ধান্তে একমত হয়ে কেন্দ্রকে সমর্থন করেছে। তিনি শেষমেশ ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, জননেতা দের কথা না শোনা পর্যন্ত দেশের সাধারন মানুষ ন্যায় পেতে পারে না। এক সময় যেসব নেতারা শাসন চালাত তাদেরকে জেলে পুরে গণতন্ত্রকে হত্যা করে, গণতন্ত্রকে বাঁচানো যায় না।

কাশ্মীরে প্রচুর পুলিশ বাহিনী দিয়ে শান্তি বজায় রাখা চেষ্টা করে চলেছে সরকার। যদিও এই পদ্ধতিটি পুরনো। ব্রিটিশ সরকারও এমনিভাবেই ২০০ বছর রাজত্ব করেছিল।

Related Articles

Close