দেশনতুন খবরবিশেষ

একজন সৈনিকের মতোই কাজ করলেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী।পাকিস্থানে যাওয়া জল আটকে দেওয়ার জন্য ব্যারেজের শিল্যান্স করলেন অমরেন্দ্র সিং।

একজন কংগ্রেস নেতা হয়ে উনি ভারত সরকারের পাশে দাড়িয়ে আছেন। উনি আর কেউ না কংগ্রেস নেতা অমরেন্দ্র সিং যিনি পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী। ইনিই এখন এক মাত্র একজন ব্যক্তি যিনি গান্ধী পরিবারের হয়ে নিজের চোখ মুজে সবকিছুতে নিজের সহমতি মেলান না। যেখানে সমস্ত কংগ্রেস পার্টির নেতারা গান্ধী পরিবারের হয়ে তালে তাল মিলিয়ে পাকিস্তানের সাথে মিত্রতার গুনগান করতে শুরু করেছে ,তখন অমরেন্দ্র সিং ভারত সরকারের কাজে একজোট হয়ে নেমে পড়েছেন।একজন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে ক্যাপ্টেন অমরেন্দ্র সিং দেশের প্রতি নিজের দায়িত্ব কে সসম্মানে পালন করেছেন এবং সাথে একজন দেশপ্রেমিকের পরিচয় দিয়ে পাকিস্তানের সাথে লড়াই ও করছেন।

আপনাদের বলে রাখি অমরেন্দ্র সিং দেশের একজন প্রাক্তন সৈনিক এবং উনি এখন একজন সৈনিকের মতো করেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে লড়াই করছেন। কিছুদিন আগে ভারত সরকার পাকিস্তানের যাওয়া জলকে আটক করে দেওয়ার কথা বলেছিল।যেখানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতিন গড়করি বলেছিলেন যে তিনটি নদীর জল যা পাকিস্তানের দিকে বয়ে যায় সেই জল কে ঘুরিয়ে ভারতেরই কাজে লাগানো হবে। শুধু তাই নয় এই জলকে ভারতের এবং ভারতের মানুষের জন্যই ব্যবহার করা হবে। যেমন কি আপনারা অনেকেই জানেন শুধু জম্মু-কাশ্মীরের নদী নয় পাঞ্জাবের এলাকা থেকে নদী বয়ে যায় পাকিস্তানের দিকে। আর এবার সেই নদী জলকে আটকানোর জন্য সামনে এগিয়ে এসেছেন ক্যাপ্টেন অমরেন্দ্র সিং। আপনাদের বলে রাখি এই জল আটকাবার জন্য ক্যাপ্টেন অমরেন্দ্র সিং ইতিমধ্যেই ব্যারেজ নির্মাণের কাজ শুরু করে দিয়েছেন।আর এই ব্যারেজ নির্মাণে মোট 2700 কোটি টাকা খরচ হবে তবে একবার এই ব্যারাজ নির্মাণ হয়ে গেলে পাকিস্তানের যাওয়া জল ভারতের মানুষেরাই ব্যবহার করতে পারবে।

গতকাল অর্থাৎ 8 ই মার্চ অমরেন্দ্র সিং ব্যারেজ নির্মাণের জন্য শিলান্যাস করেছেন।একদিকে যখন সমস্ত কংগ্রেস পার্টি থেকে শুরু করে বিরোধীরা মোদির সরকারের বিরোধ করে এয়ার স্ট্রাইক এর প্রমাণ চাইতে ব্যস্ত তখন এই কংগ্রেস নেতা অমরেন্দ্র সিং প্রথম থেকে দেশের হয়ে কথা বলছেন। আপনাদের বলে রাখি পুলওয়ামায় হওয়া জঙ্গি হামলার পর থেকেই এই প্রাক্তন সৈনিক তথা পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী পাকিস্তানের কড়া ভাষায় নিন্দা করে আসছেন।

Related Articles

Back to top button