আগামী ৬ মাসের মধ্যে দেশ জুড়ে উঠিয়ে দেওয়া হবে সমস্ত টোল প্লাজা, সংসদে জানালেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিতিন গড়করি

যেকোনো সরকারের একটি বড় ইনকামের জায়গা হল টোল প্লাজা। প্রতিদিন যাত্রীরা যে টোল ট্যাক্স জমা করে তা সরকারের ঘরে গিয়ে জমা হয়ে যায়। স্বাভাবিকভাবেই রাস্তা নির্মাণ এবং সংরক্ষণ করা হয় এই অর্থের বিনিময়ে। তবে কেন্দ্রীয় পরিবহন মন্ত্রী নীতিন গড়করি আজ রাজ্যসভায় জানিয়েছেন, আগামী ছ মাসের মধ্যে দেশের সমস্ত মহাসড়ক থেকে টোল প্লাজা ব্যবস্থা উঠে যাবে।কিন্তু কেনো?? চলুন জেনে নেওয়া যাক। গাড়ির নম্বর প্লেট থেকেই সরাসরি টোল কাটার ব্যবস্থা হবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।

এদিন এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, টোল প্লাজা দেশের অনেক সমস্যার কারণ। লম্বা লাইনে ঘন্টার পর ঘন্টা দাড়িয়ে থাকতে হয় গাড়িকে, ফলে যানজট তৈরি হয়। এই পরিস্থিতিতে তাই বিকল্প উপায় খোঁজার চেষ্টা করা হচ্ছে। এছাড়াও ৬০ কিলোমিটারের মধ্যে একাধিক টোল প্লাজা প্রসঙ্গে যখন প্রশ্ন করা হয় কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে তখন তিনি বলেন, সরকার দুটি বিকল্প পথ বের করছে।

উপগ্রহ ভিত্তিক জিপিএস ব্যবস্থার কথা ভাবছে সরকার। গাড়ির মালিকের অ্যাকাউন্ট থেকে সরাসরি যদি টাকা কেটে নেওয়া হয় বা নম্বর প্লেট থেকে যদি সরাসরি টাকা কেটে নেওয়া হয় তাহলে অনেক সহজ ভাবে টোল ট্যাক্স নেওয়া যাবে যাত্রীদের কাছ থেকে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, আমরা স্যাটেলাইট ব্যবহার করে জিপিএস ব্যবহার করতে চাই। নতুন পদ্ধতি চালু করে সহজে টোল ট্যাক্স নেওয়ার ব্যবস্থা করব আমরা।

নম্বর প্লেট প্রযুক্তিতে কোন টোল প্লাজা থাকবে না এবং একটি অত্যাধুনিক কম্পিউটারাইজ ডিজিটাল সিস্টেম হবে, যার মাধ্যমে চালকরা স্বস্তিতে গাড়ি চালাতে পারবেন। ছয় মাসের মধ্যে এই নিয়ম আনার জন্য আমরা যথাযথ চেষ্টা করছি। এই নিয়ম এলে দেশের মানুষ যানজটের সমস্যা থেকে মুক্তি পাবি অনেকটাই।