আপনার নাক ডাকায় বিরক্ত পাশের মানুষ? এখন নাক ডাকা কমাতে পারেন এই ১০ টি উপায়ে

ঘুমের মধ্যে নাক ডাকার অভ্যেস থাকে অনেকের৷ এটা যে নাক ডাকে তার বিরক্ত না লাগলেও  অন্যদের বিরক্তির কারণ হতে পারে৷  অন্যদিকে যে নাক ডাকে তাকে এই নাক ডাকার জন্য হাসির খোরাক হতে হয়৷ সাধারণ কতগুলো নিয়ম মেনে চললে এই নাক ডাকার সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। তবে জেনে নিন এই সমস্যা মোকাবিলায় ১০টি উপায়।

নাক ডাকা

• চিত হয়ে ঘুমালে গলার পেশি  শিথিল থাকে৷  ফলে নাক ডাকার প্রবণতা বৃদ্ধি পায়৷  তাই যাদের নাক ডাকার সমস্যা রয়েছে তারা কাত হয়ে ঘুমানোর অভ্যাস করে দেখতে পারেন
• যাদের ওজন বেশি,  তাঁরা স্থূলতার কারণে নাক ডাকতে পারেন। বেশি ওজনের জন্য শ্বাসনালী সরু হয়ে যায়। ফলে শ্বাস নেওয়ার সময় টিস্যুগুলোর ঘর্ষণে শব্দ হয়। তাই ওজন কমানোর চেষ্টা করুন৷
• নেশাদ্রব্য ও ঘুমের ওষুধ পরিহার করুন৷ কারণ অ্যালকোহল বা নেশা দ্রব্য এর  কারণে অনেকে নাক ডাকেন।

নাক ডাকা
• বুকের চেয়ে মাথা উপরে থাকলে নাক ডাকার প্রবণতা অনেকটা কমে যায়। তাই মাথার নিচে কয়েকটি বালিশ রাখলে নাক ডাকা কমানো যেতে পারে। তবে খেয়াল রাখবেন ঘাড়ে ব্যথা যাতে না হয়৷
• ধূমপানে শরীরের অক্সিজেন ব্যবহারের ক্ষমতা কমিয়ে দেয়৷  ফলে বাতাস বের হওয়ার পথ সংকুচিত হয়ে পড়ে। এ কারণেও অনেকে নাক ডাকতে পারেন।
•  নির্দিষ্ট সময়ে ঘুমাতে যাওয়া এবং ঘুম থেকে ওঠার অভ্যাস করা উচিত। ঘুমের সঙ্গে শরীরের একধরনের সামঞ্জস্য থাকে৷ অভ্যাস  পরিবর্তন হলে নাক ডাকার প্রবনতা কমে যেতে পারে৷

সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে জানা গেল বাংলায় বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর নাম

• শরীরচর্চা করলে  পেশি, রক্তের চলাচল ও হৃৎপিণ্ডের স্পন্দন বাড়ে৷ ঘুম ভালো হয়। এ কারণে নাক ডাকা কমাতে হলে প্রতিদিন ৩০ মিনিট শরীরচর্চার অভ্যাস করা জরুরি।
• প্রচুর পরিমাণে জল পান করলে নাসারন্ধ্র পরিস্কার থাকে৷ এতেও নাক ডাকাও কমবে।
• নাসারন্ধ্র  পরিষ্কার রাখা দরকার৷ তবেই সহজভাবে নিঃশ্বাস নিতে পারবেন। ঘুমাতে যাওয়ার আগে অবশ্যই ভালোভাবে নাক পরিষ্কার করতে হবে।
•  ঘুমাতে যাওয়ার দুই ঘণ্টা আগে রাতের খাবার খাবেন৷ এতে ভালো  পরিপাক হয়৷  ফলে রাতে ভালো ঘুম হবে। নাক ডাকাও কমবে।

নাক ডাকা

অতিরিক্ত আওয়াজ করে নাক ডাকা অনেক সময় অস্বস্তির কারণ হয়৷ এত কিছু করার পরেও সুরাহা না হলে চিকিৎসক এর পরামর্শ নিতে পারেন৷