কারা প্রথম টিকা পাবেন? কীভাবে নাম নথিভুক্ত করবেন? জেনে নিন সবকিছু

রবিবার ভারতে তৈরি কোভ্যাক্সিন এবং অক্সফোর্ডের কোভিশিল্ড এই দুটো টিকাকে ছাড়পত্র দিয়েছে কেন্দ্র। তার আগে শনিবার দেশের সমস্ত রাজ্যে করোনা টিকা দেওয়ার প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে। খুব শীঘ্রই সাধারণ মানুষকে টিকা দেওয়া হবে।

কারা পাবেন এই টিকা?

স্বাস্থ্যকর্মী ন্যাশনাল এক্সপার্ট গ্রুপ অ্যডমিনিসেন ফর কোভিড১৯ এর সুপারিশ মতন প্রথম টিকা দেওয়া হবে স্বাস্থ্যকর্মীদের। সরকারি এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এর এক কোটি স্বাস্থ্যকর্মী পাবেন করোনার টিকা৷

এরপর রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকারের পুলিশ, হোমগার্ড, বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী, পুরসভা, রাজস্ব বিভাগের কর্মীরা এবং সশস্ত্র বাহিনীতে কর্মরত ২ কোটি মানুষ টিকা পাবেন৷

এর পরবর্তী পর্যায়ে টিকা পাবেন 50 থেকে 60 বছর বয়স এবং ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তিরা৷ তারপর যে সমস্ত এলাকায় সংক্রমণ বেশি এখানকার অধিবাসীদের আগে টিকা দেওয়া হবে।

এরপর সাধারণ মানুষের জন্য দেওয়া হবে। সকলে একসঙ্গে পাবেন না।

এবার জেনে নিন টিকা নিতে গেলে আপনাকে কি করতে হবে?
Co-WIN অ্যাপে গিয়ে নিজের নাম নথিভুক্ত করতে হবে। সরকারি সচিত্র পরিচয় পত্র বা আধার কার্ড কিংবা ভোটার কার্ড এগুলোর মধ্যে দিয়ে অথেন্টিকেশন করতে হবে৷ নাম নথিভুক্ত হয়ে গেলে কবে টিকা দেওয়া হবে, কোন সময় দেওয়া হবে সবটাই এসএমএস করে জানিয়ে দেওয়া হবে, জানানো হবে SMS করে। কারা কখন পাবেন সমস্তকিছুই দেখবে জেলা প্রশাসন এবং অবশ্যই ব্যক্তিগত তথ্য যাচাই করে দেখা হবে।

আজকের রাশিফল ৪ ঠা জানুয়ারি ২০২১ সোমবার, দেখে নিন কেমন কাটবে আপনার গোটা দিন

কীভাবে টিকা দেওয়া হবে?

তিনটি ঘর থাকবে। প্রথমে টিকা নেওয়ার জন্য অপেক্ষা করতে হবে৷ সময় এলে দ্বিতীয় ঘরে গিয়ে টিকা নিতে হবে। এরপর তৃতীয় ঘরে গিয়ে ফের অপেক্ষা করতে হবে আধঘন্টা দেখতে হবে টিকার কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হচ্ছে কিনা।

কোথায় পাওয়া যাবে?

স্বাস্থ্যকেন্দ্র ছাড়া স্কুল এবং কমিউনিটি হলে চলবে টিকাকরণ। দুর্গম জায়গা আন্তর্জাতিক সীমান্ত উদ্বাস্তু কেন্দ্রে পৌঁছে যাবেন স্বাস্থ্যকর্মীদের আধিকারিকরা। এছাড়া যেখানে অন্তত একজন মেডিকেল অফিসার চিকিৎসক রয়েছেন সেখানে টিকা দেওয়া যেতে পারে৷

প্রথমেই ভ্যাক্সিনেশন অফিসার দেখবেন নাম নথিভুক্ত করা হয়েছে কিনা। এরপরে পরিচয় পত্র মিলিয়ে দেখা হবে। তারপরে টিকা দেওয়া হবে। যে টিকা দেবেন তার বিশেষ প্রশিক্ষণ থাকবে।