কপিল শর্মার শোতে ফুলশয্যার গোপন তথ্য ফাঁস করলেন খিলাড়ি

বলিউডের খিলাড়ি অক্ষয় কুমার। তাকে ঘিরে বি টাউনে চর্চা সবসময়ই চলে৷ বয়স ৫৩ কিন্তু ফিটনেসের দিক থেকে যে কোনো নিউকামারকে জোর টক্কর দেবেন খিলাড়ি। অভিনেতার পরবর্তী ছবি নিয়ে অনেকদিন থেকেই চলছিল জোর জল্পনা৷ আক্কি অভিনীত এই ছবির নাম নিয়েও হয়েছে বিতর্ক৷ সম্প্রতি কপিল শর্মার শোতে সস্ত্রীক অক্ষয় কুমার উপস্থিত ছিলেন৷

সেখানেই ফুলশয্যার দিনের এক গোপন তথ্য তিনি ফাঁস করলেন৷ মার্শাল আটে পারদর্শী, অন্যদিকে ক্যারাটেতে ব্ল্যাকবেল্ট থাকা অক্ষয়ের এহেন ব্যক্তিগত সিক্রেট নিয়ে সরগরম সোশাল মিডিয়া৷ কপিল শর্মার শো’তে অক্ষয়কে প্রশ্ন করা হয়, টুইঙ্কলের সঙ্গে বাগবিতণ্ডা হলে জয়ী হবেন কে? বিন্দুমাত্র না ভেবেই জবাব দেন অক্ষয় যে জিতবেন টুইঙ্কল।


অ্যাকশন হিরো কী রাজার মত জীবন যাপন করেন? এই প্রশ্নের উত্তরেও জবাব আসে না৷ এইসব প্রশ্নের ভিড়েও এক চমকপ্রদ তথ্য প্রকাশ করেন অক্ষয়৷ তিনি জানান বিয়ের প্রথম রাতেই একটা কথা তিনি বুঝে গেছিলেন৷ আর এই কথা জানার পরেই সোশাল মিডিয়া উত্তাল৷ কী সেই কথা?

অক্ষয় জানান, তিনি বুঝেছিলেন টুইঙ্কল এর কাছে তিনি কখনোই জিততে পারবেন না৷ একাধিক সুপারহিট ছবিতে অভিনয় করা অক্ষয়কে টুইঙ্কল নাকি বলেছিলেন ছবি যদি ফ্লপ করে তবেই তারা বিয়ে করবেন৷ আজ্ঞে হ্যাঁ এমনই অদ্ভুত প্রস্তাব দিয়েছিলেন৷ অবশেষে ছবি ফ্লপ করলে তারা বিয়ে করেন।

যার দাপটে বাঘে গরুতে এক ঘাটে জল খায় সেই বীরভূমের বেতাজ বাদশা অনুব্রত মণ্ডল বাবা ও স্বামী হিসাবে কেমন

জানা যায় একটি ফটোশুটে দুজনের দেখা হয়৷ প্রথম দেখাতেই প্রেমে পড়েন অক্ষয়৷ খিলাড়ি ছবির শ্যুটিং চলাকালীন দুজনের প্রেম হয়৷ অক্ষয় এর স্ত্রী টুইঙ্কল এক সাক্ষাতকারে জানান, মাত্র ১৫ দিনের প্রেম আর তারপরেই একসঙ্গে কিছুদিন থাকার পর বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন টুইঙ্কল৷ জানা যায় রবীনা ট্যান্ডন থেকে শিল্পা শেট্টি সেইসময়ের তাবড় অভিনেত্রীরা পাগল ছিল খিলাড়ির প্রেমে৷