বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের সঙ্গে জোট এ দেখা যাবে না অখিলেশ যাদবকে।

সমাজবাদী পার্টির ধাক্কা সামলে উঠতে না উঠতেই আরেকটি বড় ধাক্কা দিলেন সমাজবাদী পার্টির সুপ্রিমো অখিলেশ যাদব। মধ্যপ্রদেশ,রাজস্থান,ছত্রিশগড়ে নির্বাচন নিয়ে কংগ্রেস এখন প্রচুর চাপে রয়েছে। আর এর মধ্যেই কংগ্রেসের কাছে এলো দুঃখের খবর। অখিলেশ যাদব জানান মধ্যপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের সাথে তারা জোট করবেন না। এর ফলে 2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস রাজ্যে বিজেপিকে সরানোর প্ল্যান বানিয়ে ছিল তা এখন পুরোটাই অনিশ্চিত হয়ে গেল। রাজনীতিবিদরা মনে করছেন যদি জোট না হয় তাহলে বিজেপি জয়ী হয়ে যেতে পারে।


এই দুদিন আগেই বসপা নেত্রী মায়াবতী জানিয়ে দেন মধ্যপ্রদেশ এবং এবং রাজস্থানের বিধানসভা নির্বাচনে তারা কংগ্রেসের সাথে মহাজোটে অংশগ্রহণ করবে না। তারপর আবার কংগ্রেসকে ধাক্কা দিলেন সপা সুপ্রিমো অখিলেশ যাদব। সোফা তরফ থেকে জানানো হয়েছে দুই রাজ্যে কংগ্রেস নয় বহুজন সমাজ পার্টির সঙ্গে জোট করতে চান তারা। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে অখিলেশের হঠাৎ এরকম সিদ্ধান্তের কারণ কি? এর উত্তরে তিনি বলেন,’ মহাজোট গঠনের ক্ষেত্রে কংগ্রেস কোন কথাই বলছে না। কংগ্রেস আমাদের অনেক অপেক্ষা করিয়ে রেখেছে। এভাবে আর কতদিন অপেক্ষা করবো আমরা? আমরা এবার গণ্ডওয়ানা গণতন্ত্র পার্টির(জিজিপি) সাথে কথা বলবো।’

এদিকে বুধবার মায়াবতী জানিয়ে দেন বিজেপির সাথে মহাজোটে থাকছেনা বসপা। এদিন অখিলেশ যাদব মন্তব্য করেন বিজেপির বিরুদ্ধে মহা জোট গঠনে সাড়া দেওয়ার সদিচ্ছা থাকা উচিত কংগ্রেসের। এই জোট করতে দেরি হলে দুর্বল হয়ে পড়বে এই সংগঠন বলে জানিয়েছেন। গতবারে উত্তরপ্রদেশে গোরক্ষপুর এবং ফুলপুর আসনের উপনির্বাচনে বিজেপি কে হারিয়েছিলেন সপা-বসপা জোট। এবার মধ্যপ্রদেশ-রাজস্থান কংগ্রেসের সাথে মহাজোট হচ্ছে না তাই এ নির্বাচনের ফলাফল সম্পর্কে অনিশ্চিত রয়েছে।