ধোনির সাথে দেখা করতে হারিয়ানা থেকে পায়ে হেঁটে রাচি পৌঁছালেন এক ফ্যান! ফ্লাইটে ফেরার ব্যবস্থা করলেন ধোনি

আমরা অভিনেতা-অভিনেত্রীদের পর্দায় দেখতে ভালোবাসি, আমাদের মধ্যে একটি আলাদা আকর্ষণ তৈরি হয় তাঁদের প্রতি, তাঁদের প্রতি ভালোবাসা এবং সম্মান তৈরি হয় আমাদের মধ্যে। কিন্তু আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই রয়েছেন যারা নিজেদের প্রিয় মানুষকে দেখার জন্য অনেক অসম্ভবকে সম্ভব করে ফেলেন। এমনই একজন ভক্ত হলেন অজয় গিল।

মহেন্দ্র সিং ধোনি যাকে ভালোবাসেন আসমুদ্র হিমাচল। প্রাক্তন ভারতীয় এই অধিনায়কের হাতে উঠে এসেছিল বিশ্বকাপের ট্রফি। এই ক্রিকেটারের ফ্যান ফলোইং প্রায় লক্ষাধিক। এই ক্রিকেটারের জীবনী নিয়ে তৈরি হয়েছিল একটি সিনেমা, যেখানে অভিনয় করেছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত।

এবার ফিরে আসি অজয় গিলের কথায়। অজয় গিল হরিয়ানার বাসিন্দা। তিনি মহেন্দ্র সিং ধোনির একজন বড় ভক্ত। মনের মানুষকে একবার চোখের দেখা দেখার জন্য হরিয়ানার নিজের গ্রাম থেকে পায়ে হেঁটে রাঁচিতে পৌঁছেছিলেন অজয়। এই ভক্তের কথা যখন জানতে পারেন সময় মহেন্দ্র সিং ধোনি, তখন নিজেই তিনি অজয়কে স্বাগত জানান তাঁর ফার্ম হাউসে এবং আলাদা থাকার ব্যবস্থা করে দেন।

অজয় গিলের সাথে দেখা করে তাঁর মনোকামনা পূরণ করেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। এমনকি তাঁকে বাড়ি ফিরে যাওয়ার জন্য বিমানের টিকিটের ব্যবস্থা করে দেন মাহি। প্রসঙ্গত, এর আগেও মাহির সঙ্গে দেখা করতে পায়ে হেঁটে রাচি পৌঁছেছিলেন অজয়, কিন্তু সেই সময় মহেন্দ্র সিং ধোনি রাঁচিতে ছিলেন না, ছিলেন চেন্নাইতে। ফলে মহেন্দ্র সিং ধোনির সঙ্গে দেখা করা হয়নি তখন অজয়ের। তবে অজয় দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ছিলেন, তিনি মাহির সঙ্গে দেখা না করে কোন ভাবে ফিরে যাবেন না।

কিছুদিন পর আরও একবার মনের মানুষের সঙ্গে দেখা করার জন্য পায়ে হেঁটে তিনি রাচি পৌঁছে যান প্রায় ১৪৩৬ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে। সৌভাগ্যবশত এই সময়ে রাঁচিতে ছিলেন ধোনি, তিনি সমস্ত কথা শোনেন এবং তার সঙ্গে দেখা করেন এবং তার থাকার ব্যবস্থা করে দেন। এইভাবে ভক্তের মনের বাসনা পূরণ করেন ধোনি। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় নিয়ে অনেক আলোচনা করা হয় এবং মহেন্দ্র সিং ধোনির ভুয়সী প্রশংসা করা হয়।