ঝড়ের গতিকেও টেক্কা দিবে Airtel 5G! মাত্র কয়েক সেকেন্ডে ডাউনলোড হবে 1GB ফাইল

গত সপ্তাহে  বৃহস্পতিবার  হায়দরাবাদে 5G নেটওয়ার্কের সফল প্রদর্শন করে Airtel।  শেয়ারিং এর  ডায়নামিক মডেল ব্যবহার করে একই স্পেকট্রামে একসঙ্গে 4G এবং 5G-র অপারেটের মধ্যে দিয়ে প্রথম পরীক্ষায় সফল ভাবে উত্তীর্ণ হয় এই বেসরকারি টেলিকম সংস্থা। নেটওয়ার্কের সমস্ত ডোমেইনে অর্থাৎ রেডিও, কোর এবং ট্রান্সপোর্টে নেটওয়ার্ক প্রোভাইডারের ক্ষমতারও সফল প্রদর্শন করতে সক্ষম হয়েছে Airtel 5G।

5G-র সফল উড়ান সম্ভব হয়েছে NSA নেটওয়ার্ক টেকনোলজির সাহায্যে 1800 MHz ওয়াটে।  হায়দরাবাদে সেই টেস্টিংয়ে Airtel-এর 5G নেটওয়ার্কের গতি সম্পর্কেও একটা ধারণা মিলেছে। 4G-র তুলনায় 5G-র স্পিড কয়েকগুণ বেশি। যখন এয়ারটেলের 5G স্পিড টেস্ট করা হয়, তখন দেখা যায় হায়দ্রাবাদে Airtel 5G-র ডাউনলোড স্পিড যেখানে ছিল 310 Mbps,সেখানে  আপলোড স্পিড হয়েছে  65 mbps.  এয়ারটেলের তরফে 5G স্পিড প্রসঙ্গে বলা হয়েছিল এর স্পিড MB নয়, GB-তে চলে যাবে। যদিও এখনও পর্যন্ত সেই দ্রুততা আসেনি৷

Advertisements

গতকাল 1 ফেব্রুয়ারি থেকে দেশজুড়ে বদলে গিয়েছে একাধিক নিয়মাবলী! তাই দেরি না করে জেনে নিন কী কী নিয়মে এসেছে ফের বদল

Advertisements

পরীক্ষামূলক ভাবে Airtel 5G-র স্পিড পর্যবেক্ষণে 1GB ফাইল ডাউনলোড করতে সময় লেগেছে জাস্ট 30 সেকেন্ড। বোঝা যাচ্ছে  5G নামক অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ইন্টারনেট স্পিডে সবার উপরে। এতদিন যাবৎ Airtel LTE বা 4G নেটওয়ার্কে প্রায় 160 Mbps-এর আশপাশে ডাউনলোড স্পিড দিত৷

 

Airtel সফল ভাবে 5G Test সফল হলেও, দেখালেও, এখনও  5G পরিষেবা লঞ্চ করতে তৈরি ভারত একথা বলা যাবে না ।এর আগে Airtel-এর তরফে বলা হয়েছিল, দেশবাসীকে 5G নেটওয়ার্ক প্রোভাইড করতে আরও ভারী স্পেকট্রামের খোঁজে রয়েছে কোম্পানি।  ভারতে 5G নেটওয়ার্ক শুরু করার জন্য কেন্দ্রেরও অনুমতি নেওয়া প্রয়োজন। হয়ত এই অনুমতি মিলবে খুব শীঘ্র৷ তবে এই টেস্টে একটা বিষয় Airtel পরিষ্কার করে দিল, সরকার একবার অনুমতি দিলে, সবার প্রথমেই চালু হবে Airtel-এর 5G পরিষেবা।