ভারতীয় সেনা করলো সার্জিক্যাল স্ট্রাইক! পাকিস্তানের 30 কিমি ভেতর পর্যন্ত ঢুকে জঙ্গিঘাঁটিতে করা হলো বোমাবাজি

তীর্থ করতে যাওয়া অমরনাথ ভক্তদের আর কাশ্মীরে থাকা অন্যান্য পর্যটকদের উপত্যকা থেকে ফিরে আসার পরেই অ্যাডভাইসরি জারি হওয়ার পরে ভারতীয় সেনা পাক অধিকৃত কাশ্মীরে বড়োসড়ো পদক্ষেপ নিল।কয়েকটি সংবাদমাধ্যম ও পাক অধিকৃত কাশ্মীর থেকে জারি হওয়ার একটি ভিডিও অনুযায়ী জানতে পারা যায় ভারতীয় সেনাবাহিনী পাক অধিকৃত কাশ্মীরের 30 কিলোমিটার ভেতরে থাকা জঙ্গি ঘাঁটিগুলোতে ব্যাপক পরিমাণে গুলিবর্ষণ করে।

এবং ভারতীয় সেনাবাহিনী পাক অধিকৃত কাশ্মীরে 30 কিলোমিটার ভিতরে থাকা জঙ্গি ঘাঁটিগুলোকে ধ্বংস করে দেয়। সিএনএনের পাওয়া তথ্য অনুযায়ী জানতে পারা যায় ভারতীয় সেনাবাহিনী পাকিস্তানে জঙ্গি আস্তানায় যে অ্যাকশন করছেন তার দরুন নিলম ঝিলম হাইড্রো পাওয়ার প্রজেক্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আপনাদের সুবিধার্থে জানিয়ে দি, নিলাম ঝিলাম পাওয়ার প্ল্যান্ট থেকে প্রায় 4000-5000 মেগা ওয়াট বিদ্যুৎ উৎপন্ন হয়। আর এই পাওয়ার প্ল্যান থেকে পাকিস্তানের স্থিত পাঞ্জাব ও অন্যান্য রাজ্যগুলিতে বিদ্যুৎ সাপ্লাই করানো হয়।
আর যদি এ প্ল্যান্টটি ভয়াভয় ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয় তাহলে পাকিস্তানের এক অংশ সম্পূর্ণ ভাবে অন্ধকারে ডুবে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। অন্যদিকে ভারতের নেওয়া এই পদক্ষেপের বিষয়ে পাকিস্তান এক বিবৃতি জারি করেছে যেখানে তারা বলেছে ভারত যে POK (পাক অধিকৃত কাশ্মীরে) প্রবেশ করেছে ও ক্লাস্টার বোমা ব্যবহার করেছে তা  জাতিসংঘের নিয়ম ভঙ্গ করেছে। তবে এখানেই শেষ নয় পাকিস্তান আরও দাবি করে যে কেউ পাকিস্তানের নাগরিকদের অধিকার হনন করতে পারে না। কাশ্মীর প্রত্যেক পাকিস্তানির রক্তে বইছে। কাশ্মীরিদের স্বাধীনতা সংগ্রাম সফল হবে।’ তবে পাকিস্তান এখন যে রকমই বিবৃতি দেখাক না কেন ভারতীয় সেনাবাহিনী এখন চরম অ্যাকশন মুডে রয়েছে।

আর ভারতীয় সেনাবাহিনী এই চরম অ্যাকশন মুডে যদি পাক অধিকৃত কাশ্মীর দখল করে নেয় তাহলে অবাক হওয়ার কিছু নেই। কারণ ভারতীয় সেনাবাহিনী পাকিস্তান জঙ্গি ও পাক সেনাদের তুলনায় অনেকগুণ ক্ষমতাবান।

Related Articles

Close