পুজো শেষ হতেই ফর্মে ফিরলেন বীরভূমের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল,দিলেন অমিত শাহকে ওপেন চ্যালেঞ্জ।

আবার ফর্মে ফিরলেন বীরভূমের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। রবিবার লাভপুরের দাডকা গ্রামের তৃণমূলের প্রতিবাদ সভা হয়েছিল সেখানে তিনি অমিত সাহ এবং লকেট চ্যাটার্জির উপর কটাক্ষে তীর ছুড়লেন। এদিন সভায় তিনি বলেন, তারাপীঠে অমিত শাহর  রথের সামনেও উন্নয়ন দাঁড়িয়ে থাকবে। এরপর তিনি নাম না করে বিজেপি নেত্রী লকেট চ্যাটার্জি কে নাচনি বলে কটাক্ষ করেন। 21 অক্টোবর রাতে দ্বারকা গ্রামে ময়ূরাক্ষী নদীর তীরে একটি গাছ থেকে বিজেপি কর্মী তাপস বাগদির ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। এই মৃত ব্যক্তির বাবা গ্রামের পাঁচ তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

অপরদিকে জেলা পুলিশ সুপার কুনাল আগারওয়াল বলেন এটি একটি আত্মহত্যা।ঘটনার দুদিন পরে মৃত ব্যক্তির বাড়িতে সমবেদনা জানাতে আসেন বিজেপির রাজ্য সহ-সভাপতি বিশ্বপ্রিয় রায়চৌধুরী এবং বিজেপি নেত্রী লকেট চ্যাটার্জি। তারা এই ঘটনা কে কেন্দ্র করে সিবিআই তদন্ত দাবি করেছেন।আবার অপরদিকে পাঁচ তৃণমূল কর্মীকে মিথ্যা অপবাদে কারণে ওই গ্রামে তৃণমূল এর প্রতিবাদ সভা আয়োজন করা হয়। এই সভাতে আবার 50 জন বিজেপি কর্মী তৃণমূলে স্বেচ্ছায় যোগদান করেন। এই সভাতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে অনুব্রত মণ্ডল বলেন ক’দিন আগে এক নাচনি এখানে নেচে গেলেন।

আমরা কোনদিন খুনের রাজনীতি করি না আর ভবিষ্যতেও করব না।বিজেপি কর্মী আত্মহত্যা করেছেন। যদি তিনি আত্মহত্যা না করেন তাহলে তার সঠিক তদন্ত হবে, তা পুলিশের দায়িত্ব।তারাপীঠে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত সহজে রথযাত্রার করেছিলেন তা নিয়ে সাংবাদিকরা তাকে প্রশ্ন করেন এবং তিনি তার উত্তরে বলেন, অমিত শাহের রথ ফালতু। আমি এটাই কোন গুরুত্ব দিচ্ছি না। উন্নয়ন গোটা জেলা দিয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে। তিনি এও বলেন পাচন দিয়ে সব ঠিক করে দেবেন তিনি, কোন চিন্তার কারণ নেই।
অপরদিকে বিজেপি অনুব্রতের প্রতিবারের মতো এবারেও হুঁশিয়ারিকে গুরুত্ব দিচ্ছে না। উল্টে তারা বলেছেন পাচনের জবাব টাঙ্গিয়ে দেবে বিজেপি।

Related Articles

Open

Close