করোনার পর আবারও এক মহামারীর সম্ভাবনা আবারও উৎপত্তিস্থল চীন, ভয়াল গতিতে বাড়ছে G4 সংক্রমণ…

গোটা বিশ্ব এখনো পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে মরণ ভাইরাস করোনার হাত থেকে বাঁচার জন্য।আর তারই মধ্যে আবারও এক খবর বেরিয়ে এল যেটি গোটা বিশ্বকে চিন্তায় ফেলে দিয়েছে কারণ আবারও এক মারাত্মক সংক্রমকের সঙ্গে লড়তে হতে পারে গোটা বিশ্বকে। গতকাল সোমবার দিন বিজ্ঞানী জার্নাল PNAS- এ তেমন আশঙ্কার কথা প্রকাশ করেছে। যেখানে গবেষকেরা জানিয়েছেন এটি এক প্রকার ভয়াল সোয়াইন ফ্লু যার উৎস স্থল হল চীন।

শুধু তাই নয় বিজ্ঞানীদের তরফ থেকে জানানো হয়েছে এই যে G4 নামক সোয়াইন ফ্লু টি রয়েছে সেটি h191 এরই একটি বিবর্তিত রূপ। আর চীনের সেন্টার ফর ডিজিস কন্টোল অ্যান্ড প্রিভেনশানের গবেষকরা মনে করছেন সার্বিক ভাবে প্রাণঘাতী মহামারী হয়ে উঠার সম্ভাবনা বহন করছে এই G4।উল্লেখ্য 2011 সাল থেকে 2018 সাল পর্যন্ত 11 টি অঞ্চল ঘুরে ঘুরে চীনা গবেষকেরা প্রায় 30,000 শুয়োরের লালা রস পরীক্ষা করেন। যেখানে গবেষণার সময়ে 179 টি সোয়াইন ফ্লু ভাইরাসের সন্ধান পান তারা। আর তারপরই তারা পরীক্ষা শুরু করেন যেখানে দেখা মিলে অত্যন্ত ভয়াবহ এই G4 ভাইরাসের।

এমন কী মানুষের কোষের প্রতিলিপি তৈরি করতে সক্ষম এই ভাইরাস,তাছাড়া সবচেয়ে বড় আশঙ্কা রয়েছে ঋতু পরিবর্তন কালীন সর্দি-কাশির ভ্যাকসিনে G4 নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়। তাছাড়া গবেষণা বলছে চীনে শুয়োরের মাংস বিক্রেতার মধ্যে 10.4% ইতিমধ্যেই এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এমন কী 4.4% সাধারণ মানুষের মধ্যেও ছড়িয়ে পড়েছে এই সংক্রমণ।তাই এই পরিস্থিতি অনুযায়ী গবেষকরা বলছেন এখনই যদি এই সংক্রমনের দ্রুত ব্যবস্থা না নেওয়া যায় তাহলে এটিও ভবিষ্যতে বড় মহামারির আকার ধারণ করবে।

Related Articles

Close