‘গুলাবে’র পর আবার আকাশে ‘শাহিনে’র কালো মেঘ, হাতে রয়েছে মাত্র ২৪ ঘন্টা ধেয়ে আসছে আরও এক ঘূর্ণিঝড়

সাইক্লোন গুলাবের পিছন পিছন আসতে চলেছে আরও একটি ঘূর্ণিঝড় ‘শাহিন’। অন্ধ্রপ্রদেশ, ওড়িশা, তেলেঙ্গানা উপর তাণ্ডব চালিয়ে সাইক্লোন গুলাব আপাতত আরব সাগরের দিকে চলে গেছে। কিন্তু তার জেরে আরো একটি ঘূর্ণিঝড় আসতে চলেছে। এমনটাই মনে করছে আবহাওয়া বিদরা। গুলাবের উৎসস্থল ছিল মায়ানমার। কিন্তু এই নতুন সাইক্লোনের উৎস স্থল বঙ্গোপসাগর। বঙ্গোপসাগর থেকে উদ্ভূত এই ঘূর্ণিঝড় আপাতত আরব সাগরে রয়েছে। আবহাওয়া সূত্রে পাওয়া খবর শাহিন সাইক্লোন অত্যন্ত শক্তিশালী হতে পারে।

আগের বছর থেকে এ বছর পর্যন্ত পরপর বিভিন্ন সাইক্লোন তাণ্ডব চালিয়ে যাচ্ছে। পুজোর আগেই পরপর দুই সাইক্লোনের তাণ্ডবে কার্যত বিপর্যস্ত হতে পারে উপকূলবর্তী এলাকা এবং বিভিন্ন রাজ্য। উৎসবের মরসুমে প্রকৃতির তান্ডব যেন শেষ হতেই চাইছে না । গুলাবের প্রভাব রাজ্য থেকে এখনো যেতে না যেতেই আবার একটি নতুন সাইক্লোন সৃষ্টি হচ্ছে। আপাতত আরব সাগরের বুকে দাঁড়িয়ে এই সাইক্লোন শক্তি বাড়াতে পারে বলে আবহাওয়াবিদদের ধারণা।

আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যেই শক্তি বাড়িয়ে ফুঁসে উঠতে পারে সাইক্লোন শাহিন । আরব সাগর ও তার সংলগ্ন এলাকায় প্রবল ঝড়ের তান্ডব শুরু হতে পারে এই সাইক্লোন এর প্রভাবে। বুধবার পর্যন্ত গুলাবের জেরে বিভিন্ন রাজ্যে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া আরও কয়েকটি জেলায় হতে পারে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি। কিন্তু তারই মধ্যে নতুন সাইক্লোন ঢুকে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা।

Advertisements

শাহিনের প্রভাবে ৩০শে সেপ্টেম্বর থেকে ১লা অক্টোবর পর্যন্ত দুর্যোগ চলতে পারে। অনেকে এই নতুন সাইক্লোনকে গুলাব এর পুনর্জন্ম হিসেবে দেখছে। গত ২৪ ঘন্টায় সাইক্লোন শাহিনের শক্তি বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা যাচ্ছে । আরব সাগরের বুক থেকে শক্তি সঞ্চয় করে তা উপকূলবর্তী এলাকায় এগোবে । আরব সাগর থেকে এর গতিবেগ ঘন্টায় ৯৬ থেকে ১২০ কিলোমিটার হতে পারে । গুলাব নিজের শক্তি হারিয়ে বয়ে গেছে তেলেঙ্গানা, ছত্রিশগড় ,বিদর্ভের উপর দিয়ে ।

Advertisements

আবহাওয়াবিদদের মতে এই সাইক্লোন এর অভিমুখ দেখে মনে হচ্ছে এটি ওমানের দিকে চলে যাবে শাহিন এর প্রভাবে মহারাষ্ট্র, গোয়া ,কঙ্কন, মধ্যপ্রদেশের প্রবল ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে। আবহাওয়াবিদদের মতে গুলাবের লেজ থেকেই এই নতুন সাইক্লোন শাহিনের জন্ম হয়েছে। যদিও ঘটনাটি অত্যন্ত বিরল কিন্তু অতীত ঘাটলে দেখা যায় এরকম একটি সাইক্লোন এর থেকে আরও একটি গভীর ঘূর্ণবাতের সৃষ্টি হয় কোন নতুন কথা নয়।

এর আগে ২০১৮ সালেও ঠিক এরকম একটি পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছিল। ভারতের পশ্চিম উপকূলে তৈরি হওয়া একটি ঘূর্ণিঝড় গাজা তামিলনাড়ুর উপর আছড়ে পড়ার পর তা গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়। এর কয়েকদিন পরেই গাজার লেজ থেকে একটি নতুন নিম্নচাপের সৃষ্টি হয়েছিল।